ঢাকা ০১:৪২ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

৬৭ কোটি টাকায় বিক্রি হলো চীন সম্রাটের ঘড়ি

নওরোজ ডেস্ক
  • Update Time : ০৬:০৬:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩
  • / ১৩৯ Time View

চীনের শেষ সম্রাট আইসিন-গিয়োরো পুইয়ের হাতঘড়ি। ছবি: সংগৃহীত

৬২ লাখ মার্কিন ডলারে নিলামে বিক্রি হয়েছে চীনের শেষ সম্রাটের একটি হাতঘড়ি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৬৭ কোটি টাকার বেশি। খবর সিএনএনের।

মঙ্গলবার (২৩ মে) হংকংয়ে ঘড়িটি নিলামে ওঠে। এর আগে ধারণা করা হয়েছিল ঘড়িটির দাম ৩০ লাখ মার্কিন ডলার উঠবে।

কিন্তু মঙ্গলবার মাত্র পাঁচ মিনিটের নিলামে ঘড়িটির দাম ওঠে ৫১ লাখ মার্কিন ডলার। ক্রেতার প্রিমিয়াম ফিসহ ঘড়িটির মোট মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ৬২ লাখ মার্কিন ডলার।

ঘড়িটি সুইজারল্যান্ডের বিখ্যাত ঘড়ি নির্মাতা প্যাটেক ফিলিপের তৈরি। চামড়ার বেল্টের এ ঘড়ির ডায়ালটি প্লাটিনামের তৈরি, যার ব্যাস ১ দশমিক ২ ইঞ্চি। কাঁটাগুলো তৈরি গোলাপি-সোনালি রঙের মিশেলে। নিলামকারী প্রতিষ্ঠানের নাম ফিলিপস। ২০১৯ সালে ঘড়িটি নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপসের হাতে এসেছিল।

নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপসের ঘড়ি বিভাগের এশিয়া অঞ্চলের প্রধান টমাস পেরাজি বলেন, তিনি এ যুগান্তকারী নিলামে রোমাঞ্চিত। কারণ, ঘড়িটি নিলামে বিক্রির ক্ষেত্রে রেকর্ড হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের নিলামকারী প্রতিষ্ঠানটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্যাটেক ফিলিপের তৈরি এই মডেলের (রেফারেন্স ৯৬) আর কোনো ঘড়ি এত দামে আগে কখনও বিক্রি হয়নি।

নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপসের ভাষ্য, তাদের কাছে যেসব নথিপত্র রয়েছে, সে অনুযায়ী, ঘড়িটির মালিক ছিলেন ছিল চীনের শেষ সম্রাট আইসিন-গিয়োরো পুয়ি।

Please Share This Post in Your Social Media

৬৭ কোটি টাকায় বিক্রি হলো চীন সম্রাটের ঘড়ি

Update Time : ০৬:০৬:১২ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

৬২ লাখ মার্কিন ডলারে নিলামে বিক্রি হয়েছে চীনের শেষ সম্রাটের একটি হাতঘড়ি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৬৭ কোটি টাকার বেশি। খবর সিএনএনের।

মঙ্গলবার (২৩ মে) হংকংয়ে ঘড়িটি নিলামে ওঠে। এর আগে ধারণা করা হয়েছিল ঘড়িটির দাম ৩০ লাখ মার্কিন ডলার উঠবে।

কিন্তু মঙ্গলবার মাত্র পাঁচ মিনিটের নিলামে ঘড়িটির দাম ওঠে ৫১ লাখ মার্কিন ডলার। ক্রেতার প্রিমিয়াম ফিসহ ঘড়িটির মোট মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ৬২ লাখ মার্কিন ডলার।

ঘড়িটি সুইজারল্যান্ডের বিখ্যাত ঘড়ি নির্মাতা প্যাটেক ফিলিপের তৈরি। চামড়ার বেল্টের এ ঘড়ির ডায়ালটি প্লাটিনামের তৈরি, যার ব্যাস ১ দশমিক ২ ইঞ্চি। কাঁটাগুলো তৈরি গোলাপি-সোনালি রঙের মিশেলে। নিলামকারী প্রতিষ্ঠানের নাম ফিলিপস। ২০১৯ সালে ঘড়িটি নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপসের হাতে এসেছিল।

নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপসের ঘড়ি বিভাগের এশিয়া অঞ্চলের প্রধান টমাস পেরাজি বলেন, তিনি এ যুগান্তকারী নিলামে রোমাঞ্চিত। কারণ, ঘড়িটি নিলামে বিক্রির ক্ষেত্রে রেকর্ড হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের নিলামকারী প্রতিষ্ঠানটির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্যাটেক ফিলিপের তৈরি এই মডেলের (রেফারেন্স ৯৬) আর কোনো ঘড়ি এত দামে আগে কখনও বিক্রি হয়নি।

নিলামকারী প্রতিষ্ঠান ফিলিপসের ভাষ্য, তাদের কাছে যেসব নথিপত্র রয়েছে, সে অনুযায়ী, ঘড়িটির মালিক ছিলেন ছিল চীনের শেষ সম্রাট আইসিন-গিয়োরো পুয়ি।