ঢাকা ০৯:৪৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুমিল্লায় ১০০ টাকা ভাগাভাগি নিয়ে সহকর্মীকে খুন!

Reporter Name
  • Update Time : ১০:৫৫:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩
  • / ৭৭ Time View

নিহত কাজী মারুফ হোসেন

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলায় ১০০ টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে এক তরুণকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে। বুধবার (১০ মে) সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে উপজেলার বেলতলী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কাজী মারুফ হোসেন (১৯) উপজেলার বিজয়পুর ইউনিয়নের ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত হাফিজুল ইসলাম ছেলে। মারুফ এসকে ফিলিং স্টেশনের কর্মচারী ছিলেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত রাব্বি হোসেনও ওই ফিলিং স্টেশনের কর্মচারী। রাব্বি ঘোষগাঁও গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে।

এদিকে খুনের বিচার দাবিতে বুধবার বিকেলে এলাকাবাসী ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার বেলতলী এলাকা অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এতে আধাঘণ্টার বেশি সময় মহাসড়কের উভয়মুখী লেনে যান চলাচল বন্ধ ছিল।

স্থানীয়রা জানায়, নিহত কাজী মারুফ হোসেন ও অভিযুক্ত রাব্বি হোসেন এসকে ফিলিং স্টেশনে কাজ করতেন। বুধবার সকালে ১০০ টাকা নিয়ে তাদের দুজনের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রাব্বি ক্ষিপ্ত হয়ে মারুফের বুকসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন দ্রুত উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এদিন বিকেলে এলাকাবাসী মহাসড়ক অবরোধ করলে পুলিশের কর্মকর্তারা এসে দ্রুত খুনিকে আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন। এরপর তারা অবরোধ তুলে নেয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ওই তরুণকে ছুরিকাঘাতে হত্যার পরপরই রাব্বি পালিয়ে গেছেন। তাকে ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে। মহাসড়কে এখন যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

কুমিল্লায় ১০০ টাকা ভাগাভাগি নিয়ে সহকর্মীকে খুন!

Update Time : ১০:৫৫:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলায় ১০০ টাকা ভাগাভাগি নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে এক তরুণকে ছুরিকাঘাতে খুন করা হয়েছে। বুধবার (১০ মে) সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে উপজেলার বেলতলী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কাজী মারুফ হোসেন (১৯) উপজেলার বিজয়পুর ইউনিয়নের ঘোষগাঁও গ্রামের মৃত হাফিজুল ইসলাম ছেলে। মারুফ এসকে ফিলিং স্টেশনের কর্মচারী ছিলেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত রাব্বি হোসেনও ওই ফিলিং স্টেশনের কর্মচারী। রাব্বি ঘোষগাঁও গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে।

এদিকে খুনের বিচার দাবিতে বুধবার বিকেলে এলাকাবাসী ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার বেলতলী এলাকা অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এতে আধাঘণ্টার বেশি সময় মহাসড়কের উভয়মুখী লেনে যান চলাচল বন্ধ ছিল।

স্থানীয়রা জানায়, নিহত কাজী মারুফ হোসেন ও অভিযুক্ত রাব্বি হোসেন এসকে ফিলিং স্টেশনে কাজ করতেন। বুধবার সকালে ১০০ টাকা নিয়ে তাদের দুজনের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে রাব্বি ক্ষিপ্ত হয়ে মারুফের বুকসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। পরে স্থানীয় লোকজন দ্রুত উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এদিন বিকেলে এলাকাবাসী মহাসড়ক অবরোধ করলে পুলিশের কর্মকর্তারা এসে দ্রুত খুনিকে আইনের আওতায় আনার আশ্বাস দেন। এরপর তারা অবরোধ তুলে নেয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, ওই তরুণকে ছুরিকাঘাতে হত্যার পরপরই রাব্বি পালিয়ে গেছেন। তাকে ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে। মহাসড়কে এখন যান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।