ঢাকা ০৮:৪১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
সন্তানদের নতুন জামা পরিয়ে রাতে ঘর থেকে বের হয়ে আর ফিরলেন না বাবা প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্স নীতির ফলে দেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মুল হয়েছেঃ সিলেটে আইজিপি বড় পরিসরে আর. কে. মিশন রোডে ব্র্যাক ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন সৌদিতে প্রথমবারের মতো সুইমস্যুট পরে র‌্যাম্পে হাঁটলেন মডেলরা ‘আয়রনম্যান’ চরিত্রে ফিরতে ‘আপত্তি নেই’ রবার্ট ডাউনি জুনিয়রের বাংলাদেশের গণতন্ত্র ধ্বংসের জন্য ভারত সরকার দায়ী : কর্নেল অলি বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সিরিজ নিয়ে শঙ্কা কাঠালিয়ায় ডাকাতের গুলিতে আহত ২ বিএনপি একটা জালিয়ত রাজনৈতিক দল : পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেয়র তাপস মনগড়া ও অসত্য বক্তব্য দিচ্ছেন : সাঈদ খোকন

সাইকেল চালিয়ে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পাড়ি দিয়েছেন “দিদার”

ইউসুফ হোসাইন (লালপুর) নাটোর
  • Update Time : ০৯:৫৫:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মে ২০২৪
  • / ৪১ Time View

“গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান” এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে সাইকেল চালিয়ে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পাড়ি দিলেন মোঃ দিদার হোসেন নামের এক যুবক। তার বাড়ি মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার বদরপাশা গ্রামে। তিনি পেশায় একজন ঠিকাদারি ব্যবসায়ী।

টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া ! দেশের এ দুই প্রান্তের দূরত্ব এক হাজার চার কিলোমিটার। প্রচন্ড গরমের মধ্যেও মাত্র দশ দিনে বিশাল এই দূরত্ব সাইকেল চালিয়ে পাড়ি দিয়েছেন তিনি।

জানা যায়,গত ১৫ এপ্রিল দেশের শুনামধন্য সাইক্লিস্ট পরিবার হেমন্ত রাইডার্স আয়োজিত “হেমন্ত ক্রসকান্ট্রি – ৯”এর ব্যানারে তেতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট তথা বাংলাদেশ ও ভারত আন্তঃ সীমান্তবর্তী মহানন্দা নদীর তীর হতে শুরু করে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার আন্তঃ সীমান্তবর্তী নাফ নদীর তীর পর্যন্ত সাতটি ওয়ার্ক আউটের মাধ্যমে গত ২৪ শে এপ্রিল দেশের একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে সাইক্লিং সম্পন্ন করেন দিদার।

তিনি এই দশ দিনের যাত্রায় নীলফামারী, গাইবান্ধা, গোবিন্দগঞ্জ, ঢাকা, ফেনী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন স্থানে রাত্রীকালীন যাত্রা বিরতি করেন।

সর্বশেষ ২৪শে এপ্রিল কক্সবাজারের কলাতলি থেকে মেরিন ড্রাইভ ধরে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ তথা বাংলাদেশ ও মিয়ানমার আন্তঃ সীমান্তবর্তী নাফ নদীর তীরে তার এই সাইক্লিং মহাযজ্ঞ সমাপ্ত ঘোষণা করেন। শাহপরীর দ্বীপে পৌঁছালে তাকে সংবর্ধনা জানান সামাজিক সংগঠন “রেড এন্ড গ্রীণ “এর চেয়ারম্যান তাফছিরুল ইসলাম সানি।

এসময় দিদার জানান, বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের ব্যাপক প্রভাব আমাদের দেশেও পড়েছে, কার্বনডাইঅক্সাইড জলবায়ুর সবচেয়ে বড় শত্রু। বৈশ্বিক উষ্ণায়ন রোধে বেশি বেশি বৃক্ষ রোপণ অপরিহার্য।

হেমন্ত রাইডার্সের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মাদ হেদায়েতুল হাসান ফিলিপ ভাই এর “গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান” এই স্লোগানকে সাইক্লিংয়ের মাধ্যমে দেশের একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে ছড়িয়ে দিতে অনুপ্রাণিত করে এবং সাইক্লিং এর প্রতি আগ্রহ ও ভালোবাসা থেকেই আমার এই উদ্যোগ। দিদারের এই উদ্যোগে সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতা করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আমীনা কনস্ট্রাকশন।

এছাড়া তিনি বিভিন্ন ম্যারাথন এবং সাইক্লিং ইভেন্টে অংশ গ্রহণ করে থাকেন। এখন তার স্বপ্ন বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়া।

Please Share This Post in Your Social Media

সাইকেল চালিয়ে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পাড়ি দিয়েছেন “দিদার”

Update Time : ০৯:৫৫:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১ মে ২০২৪

“গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান” এই প্রতিপাদ্য কে সামনে রেখে সাইকেল চালিয়ে টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া পাড়ি দিলেন মোঃ দিদার হোসেন নামের এক যুবক। তার বাড়ি মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার বদরপাশা গ্রামে। তিনি পেশায় একজন ঠিকাদারি ব্যবসায়ী।

টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া ! দেশের এ দুই প্রান্তের দূরত্ব এক হাজার চার কিলোমিটার। প্রচন্ড গরমের মধ্যেও মাত্র দশ দিনে বিশাল এই দূরত্ব সাইকেল চালিয়ে পাড়ি দিয়েছেন তিনি।

জানা যায়,গত ১৫ এপ্রিল দেশের শুনামধন্য সাইক্লিস্ট পরিবার হেমন্ত রাইডার্স আয়োজিত “হেমন্ত ক্রসকান্ট্রি – ৯”এর ব্যানারে তেতুলিয়ার বাংলাবান্ধা জিরো পয়েন্ট তথা বাংলাদেশ ও ভারত আন্তঃ সীমান্তবর্তী মহানন্দা নদীর তীর হতে শুরু করে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার আন্তঃ সীমান্তবর্তী নাফ নদীর তীর পর্যন্ত সাতটি ওয়ার্ক আউটের মাধ্যমে গত ২৪ শে এপ্রিল দেশের একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে সাইক্লিং সম্পন্ন করেন দিদার।

তিনি এই দশ দিনের যাত্রায় নীলফামারী, গাইবান্ধা, গোবিন্দগঞ্জ, ঢাকা, ফেনী, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার জেলার বিভিন্ন স্থানে রাত্রীকালীন যাত্রা বিরতি করেন।

সর্বশেষ ২৪শে এপ্রিল কক্সবাজারের কলাতলি থেকে মেরিন ড্রাইভ ধরে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ তথা বাংলাদেশ ও মিয়ানমার আন্তঃ সীমান্তবর্তী নাফ নদীর তীরে তার এই সাইক্লিং মহাযজ্ঞ সমাপ্ত ঘোষণা করেন। শাহপরীর দ্বীপে পৌঁছালে তাকে সংবর্ধনা জানান সামাজিক সংগঠন “রেড এন্ড গ্রীণ “এর চেয়ারম্যান তাফছিরুল ইসলাম সানি।

এসময় দিদার জানান, বিশ্বব্যাপী জলবায়ু পরিবর্তনের ব্যাপক প্রভাব আমাদের দেশেও পড়েছে, কার্বনডাইঅক্সাইড জলবায়ুর সবচেয়ে বড় শত্রু। বৈশ্বিক উষ্ণায়ন রোধে বেশি বেশি বৃক্ষ রোপণ অপরিহার্য।

হেমন্ত রাইডার্সের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মাদ হেদায়েতুল হাসান ফিলিপ ভাই এর “গাছ লাগান, পরিবেশ বাঁচান” এই স্লোগানকে সাইক্লিংয়ের মাধ্যমে দেশের একপ্রান্ত থেকে অপরপ্রান্তে ছড়িয়ে দিতে অনুপ্রাণিত করে এবং সাইক্লিং এর প্রতি আগ্রহ ও ভালোবাসা থেকেই আমার এই উদ্যোগ। দিদারের এই উদ্যোগে সহযোগিতা ও পৃষ্ঠপোষকতা করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আমীনা কনস্ট্রাকশন।

এছাড়া তিনি বিভিন্ন ম্যারাথন এবং সাইক্লিং ইভেন্টে অংশ গ্রহণ করে থাকেন। এখন তার স্বপ্ন বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়া।