ঢাকা ০৮:১০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরকারি রাস্তা দখল করে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ

আব্দুল মমিন, সরাইল প্রতিনিধি
  • Update Time : ০১:৩৯:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ২৩৮ Time View

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার কালিকচ্ছ ইউনিয়নের ঘোষপাড়া ও নাথপাড়ার এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের চলাচলের সরকারি রাস্তা স্থায়ীভাবে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে মোহাম্মদ আলী নামের প্রভাবশালী এক ব্যক্তি বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগীরা সরকারি রাস্তা দখল মুক্ত করাসহ তাদের অন্যায় অত্যাচারের হাত থেকে রেহাই দিতে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আবুল কাসেম নামের এক ব্যক্তি জেলা প্রশাসক বরাবর গত ৭ মে লিখিত আবেদন জানিয়েছে।

এর আগেও সরকারি রাস্তা উদ্ধারের জন্য ২০০২ সাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রেক্ষিতে ২০০২ সালের ২২ নভেম্বর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত চিঠিতে সহকারী কমিশনার ভূমিকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কালিকচ্ছ ইউনিয়নের ঘোষপাড়া ও নাথপাড়ার মৃত অসুল উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আলী নামে প্রভাবশালী ব্যক্তি তার ৭৯৫৭ দাগের বসতবাড়ীর পশ্চিম পাশ দিয়ে অতিবাহিত স্থানীয় সরকারের জন চলাচলের ১৩ ফুট প্রশস্থ ও ৬৯০ ফুট লম্বা বিশিষ্ট গ্রামীণ রাস্তাটি জোর পূর্বক দখল করে সেখানে পাকা বাড়ী নির্মাণ করেছে। ১৩ ফুট প্রশস্থের ঐ রাস্তার ৬ ফুট দখল করে পাকা ঘর নির্মাণ করেই সে ক্ষান্ত হয়নি উপরন্ত পাকা ঘরের ছাদ রাস্তার উপরের খোলা অংশে প্রসারিত করে নিজের আয়ত্বে রেখেছে।

রাস্তাটি সংকুচিত করার কারণে দুটি পাড়ার জনসাধারণ তাদের দৈনন্দিন চলাফেরা সহ বিয়ে শাদীর অনুষ্ঠান করা অথবা মরদেহ নিয়ে তীর্থস্থানে যাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।

অভিযুক্ত মোহাম্মদ আলী বলেন, এটা কোনো রেকর্ডের জায়গা না আমাদের পারিবারিক রাস্তা।

স্থানীয় মেম্বার অরবিন্দ দত্ত বলেন, জায়গাটি হিন্দু সম্প্রদায়ের ছিল পরে মোহাম্মদ আলী কিনে মালিক হয়েছে, আগে জায়গার দাম ছিল না এমনিতে মানুষ চলাচল করত এটা রাস্তা ছিল না। বর্তমান রেকর্ডে রাস্তা উঠে এসেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাছরিন সুলতানা বলেন, বিষয়টি অবগত হলাম আমি আমার নায়েবের মাধ্যমে তদন্ত করে সত্যতা যাচাই করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দীন বলেন, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

সরকারি রাস্তা দখল করে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ

Update Time : ০১:৩৯:৩৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার কালিকচ্ছ ইউনিয়নের ঘোষপাড়া ও নাথপাড়ার এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের চলাচলের সরকারি রাস্তা স্থায়ীভাবে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে মোহাম্মদ আলী নামের প্রভাবশালী এক ব্যক্তি বিরুদ্ধে।

ভুক্তভোগীরা সরকারি রাস্তা দখল মুক্ত করাসহ তাদের অন্যায় অত্যাচারের হাত থেকে রেহাই দিতে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে আবুল কাসেম নামের এক ব্যক্তি জেলা প্রশাসক বরাবর গত ৭ মে লিখিত আবেদন জানিয়েছে।

এর আগেও সরকারি রাস্তা উদ্ধারের জন্য ২০০২ সাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দেয়ার প্রেক্ষিতে ২০০২ সালের ২২ নভেম্বর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের স্বাক্ষরিত চিঠিতে সহকারী কমিশনার ভূমিকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কালিকচ্ছ ইউনিয়নের ঘোষপাড়া ও নাথপাড়ার মৃত অসুল উদ্দিনের ছেলে মোহাম্মদ আলী নামে প্রভাবশালী ব্যক্তি তার ৭৯৫৭ দাগের বসতবাড়ীর পশ্চিম পাশ দিয়ে অতিবাহিত স্থানীয় সরকারের জন চলাচলের ১৩ ফুট প্রশস্থ ও ৬৯০ ফুট লম্বা বিশিষ্ট গ্রামীণ রাস্তাটি জোর পূর্বক দখল করে সেখানে পাকা বাড়ী নির্মাণ করেছে। ১৩ ফুট প্রশস্থের ঐ রাস্তার ৬ ফুট দখল করে পাকা ঘর নির্মাণ করেই সে ক্ষান্ত হয়নি উপরন্ত পাকা ঘরের ছাদ রাস্তার উপরের খোলা অংশে প্রসারিত করে নিজের আয়ত্বে রেখেছে।

রাস্তাটি সংকুচিত করার কারণে দুটি পাড়ার জনসাধারণ তাদের দৈনন্দিন চলাফেরা সহ বিয়ে শাদীর অনুষ্ঠান করা অথবা মরদেহ নিয়ে তীর্থস্থানে যাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে পড়েছে।

অভিযুক্ত মোহাম্মদ আলী বলেন, এটা কোনো রেকর্ডের জায়গা না আমাদের পারিবারিক রাস্তা।

স্থানীয় মেম্বার অরবিন্দ দত্ত বলেন, জায়গাটি হিন্দু সম্প্রদায়ের ছিল পরে মোহাম্মদ আলী কিনে মালিক হয়েছে, আগে জায়গার দাম ছিল না এমনিতে মানুষ চলাচল করত এটা রাস্তা ছিল না। বর্তমান রেকর্ডে রাস্তা উঠে এসেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাছরিন সুলতানা বলেন, বিষয়টি অবগত হলাম আমি আমার নায়েবের মাধ্যমে তদন্ত করে সত্যতা যাচাই করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সরাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইউএনও মুহাম্মদ সরওয়ার উদ্দীন বলেন, এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।