ঢাকা ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সবুজবাগে বাসা ভাড়া নিতে এসে নারীকে বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ

Reporter Name
  • Update Time : ০৯:২০:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩
  • / ১০১ Time View

রাজধানীর সবুজবাগ থানাধীন দক্ষিণগাঁও এলাকায় বাসা ভাড়া নিতে এসে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে খাইয়ে হাসিনা বেগম নামে এক নারীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় ওই নারীর গলার চেইন, কানের দুল, চুড়ি ও নগদ টাকা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তচক্রটি।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে মারা যান তিনি।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সবুজবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজমিন নাহার। তিনি জানান, গত সোমবার বাসা ভাড়া নেওয়ার জন্য দুই নারী হাসিনা বেগমের সঙ্গে এসে কথা বলেন। হাসিনা বেগম ওই নারীদের কাছে ৭ হাজার টাকা ভাড়া চান। এ সময় তারা ৫০০ টাকা বাসা ভাড়া বাবদ অগ্রিম দেন।

পরদিন মঙ্গলবার (৯ মে) ওই বাসায় দুই নারীসহ এক পুরুষ আসেন। এ সময় তারা বেলের জুস ও মাথায় দেওয়ার মেহেদী ও বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য নিয়ে আসেন। পরে হাসিনা বেগমকে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে অচেতন করে তার কাছ থেকে গলার স্বর্ণের চেইন, কানের দুল, চুড়ি ও নগদ টাকা নিয়ে যায় চক্রটি।

মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে মুগদা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাত সোয়া তিনটার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল ভর্তি করা হয়। সেখানে বুধবার সকাল সাড়ে দশটায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা তাকে জুসের সাথে বিষ মিশিয়ে খাইয়ে হত্যা করে থাকতে পারে। মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মার্গে পাঠানো হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

সবুজবাগে বাসা ভাড়া নিতে এসে নারীকে বিষ খাইয়ে হত্যার অভিযোগ

Update Time : ০৯:২০:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১০ মে ২০২৩

রাজধানীর সবুজবাগ থানাধীন দক্ষিণগাঁও এলাকায় বাসা ভাড়া নিতে এসে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে খাইয়ে হাসিনা বেগম নামে এক নারীকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় ওই নারীর গলার চেইন, কানের দুল, চুড়ি ও নগদ টাকা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তচক্রটি।

আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগে মারা যান তিনি।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সবুজবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আজমিন নাহার। তিনি জানান, গত সোমবার বাসা ভাড়া নেওয়ার জন্য দুই নারী হাসিনা বেগমের সঙ্গে এসে কথা বলেন। হাসিনা বেগম ওই নারীদের কাছে ৭ হাজার টাকা ভাড়া চান। এ সময় তারা ৫০০ টাকা বাসা ভাড়া বাবদ অগ্রিম দেন।

পরদিন মঙ্গলবার (৯ মে) ওই বাসায় দুই নারীসহ এক পুরুষ আসেন। এ সময় তারা বেলের জুস ও মাথায় দেওয়ার মেহেদী ও বিভিন্ন খাদ্যদ্রব্য নিয়ে আসেন। পরে হাসিনা বেগমকে জুসের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে অচেতন করে তার কাছ থেকে গলার স্বর্ণের চেইন, কানের দুল, চুড়ি ও নগদ টাকা নিয়ে যায় চক্রটি।

মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে মুগদা মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাত সোয়া তিনটার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল ভর্তি করা হয়। সেখানে বুধবার সকাল সাড়ে দশটায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা তাকে জুসের সাথে বিষ মিশিয়ে খাইয়ে হত্যা করে থাকতে পারে। মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মার্গে পাঠানো হয়েছে।