ঢাকা ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
কিশোরগঞ্জে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল প্রেস কাউন্সিল সাংবাদিকতার মান উন্নয়নে কাজ করছেঃ সিলেটে বিচারপতি মো. নিজামুল হক গাইবান্ধায় তৈরি হচ্ছে পরিবেশবান্ধব কংক্রিটের ইট গাইবান্ধায় মামলা প্রত্যাহার ও পুলিশি হয়রানির প্রতিবাদে মানববন্ধন সিলেট প্রেসক্লাব নির্বাচনে সভাপতি ইকরামুল কবির, সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম ঝালকাঠিতে ট্রাকচাপায় ১৪ জন নিহতের ঘটনায় চালক-হেলপার কারাগারে সূর্যের প্রখরতা আর ভ্যাপসা গরমে জনজীবন অতিষ্ঠ বিএনপির লক্ষ্য একাত্তর মুছে সাত চল্লিশে ফিরে যাওয়া: শাহরিয়ার কবির  হানিমুনে যাওয়া হলো না নবদম্পতির, একই পরিবারের ৬ জন নিহত ঝালকাঠিতে ট্রাকচাপায় নিহত ১৪ জনের মরদেহ হস্তান্তর

শিক্ষক রাজীব মীরের পাওনা বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জবি নীলদলের

মো রাকিব হাসান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
  • Update Time : ০৯:০৬:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩
  • / ৯৫ Time View

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চাকরিচ্যুত প্রয়াত সহযোগী অধ্যাপক মীর মোশাররফ হোসেনের (রাজীব মীর) পরিবারকে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তার চাকরির সব আর্থিক সুবিধা প্রদানসহ ১০ দফা দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল।

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ মে) নীলদলের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক ড. নাফিস আহমদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ওই দাবি জানানো হয়। এ ব্যাপারে উপাচার্যের কাছে লিখিত আবেদনও করা হয়েছে।

এরআগে ২০১৭ সালের ১০ জুলাই রাজিব মীরকে স্থায়ীভাবে চাকরিচ্যুত করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। এরপর তিনি আদালতে রিট করেন। তবে ২০১৮ সালের ২১ জুলাই চেন্নাইয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজীব মীর মারা যান। এরপর তার স্ত্রী সুমনা খান রিটটির পক্ষভুক্ত হন।

পরে ওই রিটের আদেশে আদালত রাজীব মীরের বরখাস্তের সিদ্ধান্ত বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করে। এ ছাড়া মৃত্যুর আগ পর্যন্ত বেতন-ভাতাদি পরিশোধ করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়া হয়। তবে কয়েকবছর হয়ে গেলেও মৃত রাজীব মীরের পরিবারকে পাওনা বুঝিয়ে দেয় নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এজন্য রাজীব মীরের সহকর্মী আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরা দ্রুত পরিবারকে পাওনা বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জানান।

এদিকে শিক্ষকদের বাকি দাবিগুলো হলো- বঙ্গবন্ধু চেয়ারে উচ্চ মেধাসম্পন্ন যোগ্য এবং দক্ষ শিক্ষাবিদকে নিয়োগ, শিক্ষকদের শিক্ষাছুটি সংক্রান্ত চলমান জটিলতা নিরসন, মেয়াদোত্তীর্ণ সব পদে নিয়োগ, দর্শন বিভাগের প্রয়াত অধ্যাপক ড. নুরুল মোমেনের পেনশন সংক্রান্ত বিষয়টি নিষ্পত্তি, নতুন ক্যাম্পাস নির্মাণকাজ দ্রুত বাস্তবায়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করা, শিক্ষক সমিতির পেশ করা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আইন সংশোধন, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীর অবসর ভাতা, গোষ্ঠী বীমা, ভবিষ্য তহবিল গঠন সংক্রান্ত প্রভাবিত সংবিধিসমূহের অনুমোদন করা।

এ ছাড়া শিক্ষকদের বিভিন্ন ভাতা সংক্রান্ত অডিট আপত্তি নিষ্পত্তি, শিক্ষকদের পরীক্ষার পারিতোষিকের বিষয়ে শিক্ষক সমিতির প্রস্তাব বাস্তবায়ন, বকেয়া বিল প্রদান, সেশনজট নিরসণ করার দাবি জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

Please Share This Post in Your Social Media

শিক্ষক রাজীব মীরের পাওনা বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জবি নীলদলের

Update Time : ০৯:০৬:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চাকরিচ্যুত প্রয়াত সহযোগী অধ্যাপক মীর মোশাররফ হোসেনের (রাজীব মীর) পরিবারকে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তার চাকরির সব আর্থিক সুবিধা প্রদানসহ ১০ দফা দাবি জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামীপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল।

আজ বৃহস্পতিবার (২৫ মে) নীলদলের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. জাকির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক ড. নাফিস আহমদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ওই দাবি জানানো হয়। এ ব্যাপারে উপাচার্যের কাছে লিখিত আবেদনও করা হয়েছে।

এরআগে ২০১৭ সালের ১০ জুলাই রাজিব মীরকে স্থায়ীভাবে চাকরিচ্যুত করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়। এরপর তিনি আদালতে রিট করেন। তবে ২০১৮ সালের ২১ জুলাই চেন্নাইয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজীব মীর মারা যান। এরপর তার স্ত্রী সুমনা খান রিটটির পক্ষভুক্ত হন।

পরে ওই রিটের আদেশে আদালত রাজীব মীরের বরখাস্তের সিদ্ধান্ত বেআইনি ও অবৈধ ঘোষণা করে। এ ছাড়া মৃত্যুর আগ পর্যন্ত বেতন-ভাতাদি পরিশোধ করতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়া হয়। তবে কয়েকবছর হয়ে গেলেও মৃত রাজীব মীরের পরিবারকে পাওনা বুঝিয়ে দেয় নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এজন্য রাজীব মীরের সহকর্মী আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরা দ্রুত পরিবারকে পাওনা বুঝিয়ে দেয়ার দাবি জানান।

এদিকে শিক্ষকদের বাকি দাবিগুলো হলো- বঙ্গবন্ধু চেয়ারে উচ্চ মেধাসম্পন্ন যোগ্য এবং দক্ষ শিক্ষাবিদকে নিয়োগ, শিক্ষকদের শিক্ষাছুটি সংক্রান্ত চলমান জটিলতা নিরসন, মেয়াদোত্তীর্ণ সব পদে নিয়োগ, দর্শন বিভাগের প্রয়াত অধ্যাপক ড. নুরুল মোমেনের পেনশন সংক্রান্ত বিষয়টি নিষ্পত্তি, নতুন ক্যাম্পাস নির্মাণকাজ দ্রুত বাস্তবায়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করা, শিক্ষক সমিতির পেশ করা জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় আইন সংশোধন, শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীর অবসর ভাতা, গোষ্ঠী বীমা, ভবিষ্য তহবিল গঠন সংক্রান্ত প্রভাবিত সংবিধিসমূহের অনুমোদন করা।

এ ছাড়া শিক্ষকদের বিভিন্ন ভাতা সংক্রান্ত অডিট আপত্তি নিষ্পত্তি, শিক্ষকদের পরীক্ষার পারিতোষিকের বিষয়ে শিক্ষক সমিতির প্রস্তাব বাস্তবায়ন, বকেয়া বিল প্রদান, সেশনজট নিরসণ করার দাবি জানানো হয় বিজ্ঞপ্তিতে।