ঢাকা ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রিকশাচালককে পেটানোর ঘটনায় আইনজীবীর শাস্তি দাবি

Reporter Name
  • Update Time : ১১:০০:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ মে ২০২৩
  • / ৮৫ Time View

যশোরে রিকশাচালককে প্রকাশ্যে পেটানোর ঘটনায় আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে রিকশা-ভ্যান শ্রমিক লীগ। মঙ্গলবার (৯ মে) বিকেলে প্রেসক্লাব যশোরের সামনে ঘণ্টাব্যাপী এ কর্মসূচিতে অংশ নেন শহরের রিকশা-ভ্যান চালকরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন শ্রমিক লীগের যশোর জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জবেদ আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জমান বাবলু, প্রচার সম্পাদক চান মিয়া ও সাবেক সভাপতি আব্দুস সবুর হেলাল।
মানববন্ধনে বক্তারা এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনায় নারী আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। অন্যথায় তারা আরও বড় প্রতিবাদী কর্মসূচি গ্রহণের হুঁশিয়ারি দেন।

এদিকে বিকেলে প্রেসক্লাব যশোরের সামনে রিকশাচালকরা মানববন্ধন করার উদ্দেশ্যে জড়ো হলে ঘটনাস্থলে আসেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু মোর্তজা। এ সময় তিনি ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেন।

আবু মোর্তজা সাংবাদিকদের বলেন, প্রেসক্লাবের সামনে রিকশাচালকরা জড়ো হয়েছেন- এমন খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে আসি এবং তাদেরকে সঠিক বিচারের আশ্বাস দেই। আমরা ইতোমধ্যে ওই নারী আইনজীবীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। আগামী তিন দিনের মধ্যে তিনি জবাব দেবেন। আমরা মিটিং করে তার বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা নিব। মারধরের শিকার রিকশাচালক হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তাকেও দেখভাল করা হচ্ছে।

ভ্যান-রিকশা শ্রমিক লীগের যশোর জেলা শাখার সভাপতি আবু তাহের মিয়া বলেন, আমাদের রিকশাচালক ভাইটির শরীরে একাধিক অস্ত্রোপচার করা। তার এমন শরীরের ওপর একজন আইনজীবী, আইনের পোশাক পরে কীভাবে জুতা দিয়ে আঘাত করেন? আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। নতুবা আমরা আরও বড় প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করব।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া রিকশাচালক রিয়াজ হোসেন বলেন, আমরা রিকশা চালাই, তাই বলে কি আমরা মানুষ না? আমাদের গায়ে জুতার বাড়ি মারতে হবে? সড়কে চলতে গেলে দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে। কেউ তো ইচ্ছা করে দুর্ঘটনা ঘটায় না। তাই বলে একজন রিকশাচালককে জনসম্মুখে জুতা দিয়ে পেটাতে হবে? এটা খুবই দুঃখজনক।

সংগৃহীত

প্রসঙ্গত, গত রোববার (৭ মে) দুপুরে যশোর আদালতের সামনের সড়কে এক রিকশাচালককে প্রকাশ্যে মারধর করেন আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষ। ওই ঘটনার একটি ভিডিও ঘটনার পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, কালো গাউন পরিহিত এক আইনজীবী রিকশাচালকের জামার কলার ধরে চড়-থাপ্পড় দিচ্ছেন। মারতে মারতে তাকে রিকশার চাবি নিয়ে পৌরসভায় যেতে বলেন। জামার কলার ধরে বারবার রিকশাচালককে পৌরসভায় নিয়ে গিয়ে লাইসেন্স বাতিল করার হুমকিও দিতে দেখা যায়। এ সময় রিকশাচালক হাত উঁচু করে মাফ চান। এরপরও ওই আইনজীবীকে চড়াও হতে দেখা যায়। এ সময় সড়কে পথচারীরা তাকে থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। একপর্যায়ে এক নারী এগিয়ে এসে প্রতিবাদ করলে ক্ষান্ত হন তিনি। এরপর ওই চালক রিকশা নিয়ে চলে যান।

Please Share This Post in Your Social Media

রিকশাচালককে পেটানোর ঘটনায় আইনজীবীর শাস্তি দাবি

Update Time : ১১:০০:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ মে ২০২৩

যশোরে রিকশাচালককে প্রকাশ্যে পেটানোর ঘটনায় আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে রিকশা-ভ্যান শ্রমিক লীগ। মঙ্গলবার (৯ মে) বিকেলে প্রেসক্লাব যশোরের সামনে ঘণ্টাব্যাপী এ কর্মসূচিতে অংশ নেন শহরের রিকশা-ভ্যান চালকরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন শ্রমিক লীগের যশোর জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জবেদ আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জমান বাবলু, প্রচার সম্পাদক চান মিয়া ও সাবেক সভাপতি আব্দুস সবুর হেলাল।
মানববন্ধনে বক্তারা এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনায় নারী আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। অন্যথায় তারা আরও বড় প্রতিবাদী কর্মসূচি গ্রহণের হুঁশিয়ারি দেন।

এদিকে বিকেলে প্রেসক্লাব যশোরের সামনে রিকশাচালকরা মানববন্ধন করার উদ্দেশ্যে জড়ো হলে ঘটনাস্থলে আসেন জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু মোর্তজা। এ সময় তিনি ঘটনার সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেন।

আবু মোর্তজা সাংবাদিকদের বলেন, প্রেসক্লাবের সামনে রিকশাচালকরা জড়ো হয়েছেন- এমন খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে আসি এবং তাদেরকে সঠিক বিচারের আশ্বাস দেই। আমরা ইতোমধ্যে ওই নারী আইনজীবীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছি। আগামী তিন দিনের মধ্যে তিনি জবাব দেবেন। আমরা মিটিং করে তার বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যবস্থা নিব। মারধরের শিকার রিকশাচালক হাসপাতালে ভর্তি আছেন। তাকেও দেখভাল করা হচ্ছে।

ভ্যান-রিকশা শ্রমিক লীগের যশোর জেলা শাখার সভাপতি আবু তাহের মিয়া বলেন, আমাদের রিকশাচালক ভাইটির শরীরে একাধিক অস্ত্রোপচার করা। তার এমন শরীরের ওপর একজন আইনজীবী, আইনের পোশাক পরে কীভাবে জুতা দিয়ে আঘাত করেন? আমরা এর সুষ্ঠু বিচার চাই। নতুবা আমরা আরও বড় প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করব।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়া রিকশাচালক রিয়াজ হোসেন বলেন, আমরা রিকশা চালাই, তাই বলে কি আমরা মানুষ না? আমাদের গায়ে জুতার বাড়ি মারতে হবে? সড়কে চলতে গেলে দুর্ঘটনা ঘটতেই পারে। কেউ তো ইচ্ছা করে দুর্ঘটনা ঘটায় না। তাই বলে একজন রিকশাচালককে জনসম্মুখে জুতা দিয়ে পেটাতে হবে? এটা খুবই দুঃখজনক।

সংগৃহীত

প্রসঙ্গত, গত রোববার (৭ মে) দুপুরে যশোর আদালতের সামনের সড়কে এক রিকশাচালককে প্রকাশ্যে মারধর করেন আইনজীবী আরতি রাণী ঘোষ। ওই ঘটনার একটি ভিডিও ঘটনার পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, কালো গাউন পরিহিত এক আইনজীবী রিকশাচালকের জামার কলার ধরে চড়-থাপ্পড় দিচ্ছেন। মারতে মারতে তাকে রিকশার চাবি নিয়ে পৌরসভায় যেতে বলেন। জামার কলার ধরে বারবার রিকশাচালককে পৌরসভায় নিয়ে গিয়ে লাইসেন্স বাতিল করার হুমকিও দিতে দেখা যায়। এ সময় রিকশাচালক হাত উঁচু করে মাফ চান। এরপরও ওই আইনজীবীকে চড়াও হতে দেখা যায়। এ সময় সড়কে পথচারীরা তাকে থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। একপর্যায়ে এক নারী এগিয়ে এসে প্রতিবাদ করলে ক্ষান্ত হন তিনি। এরপর ওই চালক রিকশা নিয়ে চলে যান।