ঢাকা ০৮:২৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
সন্তানদের নতুন জামা পরিয়ে রাতে ঘর থেকে বের হয়ে আর ফিরলেন না বাবা প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্স নীতির ফলে দেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মুল হয়েছেঃ সিলেটে আইজিপি বড় পরিসরে আর. কে. মিশন রোডে ব্র্যাক ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন সৌদিতে প্রথমবারের মতো সুইমস্যুট পরে র‌্যাম্পে হাঁটলেন মডেলরা ‘আয়রনম্যান’ চরিত্রে ফিরতে ‘আপত্তি নেই’ রবার্ট ডাউনি জুনিয়রের বাংলাদেশের গণতন্ত্র ধ্বংসের জন্য ভারত সরকার দায়ী : কর্নেল অলি বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সিরিজ নিয়ে শঙ্কা কাঠালিয়ায় ডাকাতের গুলিতে আহত ২ বিএনপি একটা জালিয়ত রাজনৈতিক দল : পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেয়র তাপস মনগড়া ও অসত্য বক্তব্য দিচ্ছেন : সাঈদ খোকন

মেধা ও মানসিক বিকাশের জন্য বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

মো.মুহিবুর রহমান, সিলেট
  • Update Time : ০১:০৭:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪
  • / ২৫ Time View

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নাহিদ ইজাহার খান এমপি বলেছেন বই মানুষের পরম বন্ধু। বই পড়া ব্যতীত সমাজ, সংস্কৃতি ও দেশকে জানা যায় না। মেধা ও মানসিক বিকাশের জন্য বই পড়ার অভ্যাস তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ার কারিগর শিক্ষার্থীদের স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে বই পড়ার গুরুত্ব অপরিসীম।

রোববার (২৮ এপ্রিল) জেলা স্টেডিয়ামের মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের আয়োজনে ও বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের বাস্তবায়নে সিলেট বিভাগীয় বই মেলা ২০২৪ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথা বলেন।

বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি  ছিলেন পুলিশ কমিশনার মো. জাকির হোসেন খান, অতিরিক্ত ডিআইজি হুমায়ুন কবীর, সংস্কৃত বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব শারমিন জাহান, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর, জেলা প্রশাসক সিলেট শেখ রাসেল হাসান, বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির পরিচালক মেছবাহউদ্দীন আহমেদ।অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক ও পরিচালক, স্থানীয় সরকার) দেবজিৎ সিংহ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নাহিদ ইজহার খান বলেন, আজকের শিক্ষার্থীরা আগামীর ভবিষ্যৎ, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মূল কারিগর। তাই শিক্ষার্থীদের বই পড়ার মাধ্যমে স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে যাতে তাঁরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরিতে অবদান রাখতে পারে। এছাড়াও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করে যোগ্য ও স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এতে তারা পরিবার ও সমাজের বোঝা হবার পরিবর্তে দেশের জন্য অবদান রাখার সুযোগ পাবে।

অভিভাবকদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপনারা শিশুদের বই পড়ায় উৎসাহিত করুন। নিজেরা বই পড়ুন এবং শিশুদের জন্য বই কিনুন।

তিনি আরও বলেন, এখন শিশুদের মধ্যে বই পড়ার প্রবণতা হারিয়ে গেছে। তারা সারা দিন স্মার্টফোন নিয়ে ব্যস্ত থাকে। তাই তাঁদের মধ্যে বইকে ভালোবাসা ও বই পড়ার প্রবণতা ফিরিয়ে আনতে ডিজিটাল মাধ্যম স্মার্টফোন, আমাজন কিন্ডল থেকে হলেও বই পড়ার ব্যবস্থা করতে অভিভাবকদের অনুরোধ করেন তিনি।

পরে তিনি সিলেট বিভাগীয় বই মেলার উবোধন করেন। পরে তিনি বই মেলার স্টল ঘুরে দেখেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

মেধা ও মানসিক বিকাশের জন্য বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

Update Time : ০১:০৭:৩৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৪

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নাহিদ ইজাহার খান এমপি বলেছেন বই মানুষের পরম বন্ধু। বই পড়া ব্যতীত সমাজ, সংস্কৃতি ও দেশকে জানা যায় না। মেধা ও মানসিক বিকাশের জন্য বই পড়ার অভ্যাস তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়ার কারিগর শিক্ষার্থীদের স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে বই পড়ার গুরুত্ব অপরিসীম।

রোববার (২৮ এপ্রিল) জেলা স্টেডিয়ামের মোহাম্মদ আলী জিমনেশিয়ামে জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের আয়োজনে ও বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের বাস্তবায়নে সিলেট বিভাগীয় বই মেলা ২০২৪ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি কথা বলেন।

বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকীর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি  ছিলেন পুলিশ কমিশনার মো. জাকির হোসেন খান, অতিরিক্ত ডিআইজি হুমায়ুন কবীর, সংস্কৃত বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব শারমিন জাহান, জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের পরিচালক মিনার মনসুর, জেলা প্রশাসক সিলেট শেখ রাসেল হাসান, বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির পরিচালক মেছবাহউদ্দীন আহমেদ।অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক ও পরিচালক, স্থানীয় সরকার) দেবজিৎ সিংহ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী নাহিদ ইজহার খান বলেন, আজকের শিক্ষার্থীরা আগামীর ভবিষ্যৎ, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার মূল কারিগর। তাই শিক্ষার্থীদের বই পড়ার মাধ্যমে স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে যাতে তাঁরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরিতে অবদান রাখতে পারে। এছাড়াও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের সকল সুযোগ সুবিধা প্রদান করে যোগ্য ও স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। এতে তারা পরিবার ও সমাজের বোঝা হবার পরিবর্তে দেশের জন্য অবদান রাখার সুযোগ পাবে।

অভিভাবকদের উদ্দেশে প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপনারা শিশুদের বই পড়ায় উৎসাহিত করুন। নিজেরা বই পড়ুন এবং শিশুদের জন্য বই কিনুন।

তিনি আরও বলেন, এখন শিশুদের মধ্যে বই পড়ার প্রবণতা হারিয়ে গেছে। তারা সারা দিন স্মার্টফোন নিয়ে ব্যস্ত থাকে। তাই তাঁদের মধ্যে বইকে ভালোবাসা ও বই পড়ার প্রবণতা ফিরিয়ে আনতে ডিজিটাল মাধ্যম স্মার্টফোন, আমাজন কিন্ডল থেকে হলেও বই পড়ার ব্যবস্থা করতে অভিভাবকদের অনুরোধ করেন তিনি।

পরে তিনি সিলেট বিভাগীয় বই মেলার উবোধন করেন। পরে তিনি বই মেলার স্টল ঘুরে দেখেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।