ঢাকা ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
বিমানবন্দর-টঙ্গী থেকে ধারালো অস্ত্রসহ ৮ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার কিশোরগঞ্জে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলের উন্নয়ন খাতের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ সাংবাদিককে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা ও গ্র্যাজুয়েট হতে হবে বেনজীরের আরও ১১৩ দলিলের সম্পদ ও গুলশানের ৪টি ফ্ল্যাট জব্দের আদেশ সুজানগরে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে কাউকে ছাড় দেব না : ইসি রাশেদা ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে একটি বাড়ি থেকে ১২ কোটি রুপির স্বর্ণ জব্দ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রেরণের আহ্বান প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর ঝালকাঠিতে রেমালের প্রভাবে নদীর পানি বেড়েছে ২১৭ নেতাকে বহিষ্কার করল বিএনপি

মিরপুর চিড়িয়াখানায় হায়েনার কামড়ে শিশুর হাত বিচ্ছিন্ন

স্টাফ রিপোর্টার
  • Update Time : ০৯:৩০:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ জুন ২০২৩
  • / ২৪৩ Time View

রাজধানীর মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানায় আড়াই বছরের এক শিশুর হাত কামড়ে বিচ্ছিন্ন করে খেয়ে ফেলেছে হায়েনা।

চিড়িয়াখানায় হায়েনার কামড়ে আহত শিশু। ছবি: সংগৃহীত

বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন জাতীয় চিড়িয়াখানার পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম তালুকদার।

চিড়িয়াখানার পরিচালক জানান, শিশুটির বাড়ি নওগাঁয়। পরিবারের সাথে গাজীপুরে থাকে। সেখান থেকে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাবা-মায়ের সঙ্গে চিড়িয়াখানায় বেড়াতে আসে আড়াই বছরের শিশু সায়ীদ। খেলতে খেলতে হায়েনার খাঁচায় হাত ঢুকিয়ে দিলে তার হাতে কামড় বসায় হায়েনা।
এসময় পরিবারের লোকজন শিশুটির হাত ধরে টানাতানি করে বাঁচানোর চেষ্টা করলে কব্জি থেকে হাত আলাদা হয়ে যায়। শিশুটি বর্তমানে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে।

পরিচালক আরও জানান, বাচ্চাটার মা-বাবা নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হয়ে হায়েনার খাঁচার কাছে চলে আসে। যদিও খাঁচায় নেট দেওয়া ছিল কিন্তু ছোট বাচ্চাটা নেটের ভেতর দিয়ে হাত ঢুকিয়ে দেয়। তখনই বাচ্চাটার হাত কামড়ে কবজি থেকে বিচ্ছিন্ন করে বিচ্ছিন্ন হাতটি খেয়ে ফেলে হায়েনা।

তিনি বলেন, ঘটনাটি ঘটার সঙ্গে সঙ্গেই তাদের নিরাপত্তাকর্মীরা বাচ্চাটাকে ভেটেনারি হাসপাতালে নিয়ে এলে দ্রুততার সঙ্গে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই অধিদপ্তর থেকে কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়নে শিশুটির চিকিৎসা করা হচ্ছে। এই ঘটনায় ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর আলাদা আলাদা দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। হায়েনার নিরাপত্তা বেষ্টনী উঁচু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার পর নিরাপত্তা নিয়ে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ নতুন করে চিন্তা-ভাবনা করবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে শিশুটির মায়ের দাবি, চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের অবহেলায় আমার বাচ্চার সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

মিরপুর চিড়িয়াখানায় হায়েনার কামড়ে শিশুর হাত বিচ্ছিন্ন

Update Time : ০৯:৩০:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৮ জুন ২০২৩

রাজধানীর মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানায় আড়াই বছরের এক শিশুর হাত কামড়ে বিচ্ছিন্ন করে খেয়ে ফেলেছে হায়েনা।

চিড়িয়াখানায় হায়েনার কামড়ে আহত শিশু। ছবি: সংগৃহীত

বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন জাতীয় চিড়িয়াখানার পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম তালুকদার।

চিড়িয়াখানার পরিচালক জানান, শিশুটির বাড়ি নওগাঁয়। পরিবারের সাথে গাজীপুরে থাকে। সেখান থেকে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাবা-মায়ের সঙ্গে চিড়িয়াখানায় বেড়াতে আসে আড়াই বছরের শিশু সায়ীদ। খেলতে খেলতে হায়েনার খাঁচায় হাত ঢুকিয়ে দিলে তার হাতে কামড় বসায় হায়েনা।
এসময় পরিবারের লোকজন শিশুটির হাত ধরে টানাতানি করে বাঁচানোর চেষ্টা করলে কব্জি থেকে হাত আলাদা হয়ে যায়। শিশুটি বর্তমানে রাজধানীর পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে।

পরিচালক আরও জানান, বাচ্চাটার মা-বাবা নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হয়ে হায়েনার খাঁচার কাছে চলে আসে। যদিও খাঁচায় নেট দেওয়া ছিল কিন্তু ছোট বাচ্চাটা নেটের ভেতর দিয়ে হাত ঢুকিয়ে দেয়। তখনই বাচ্চাটার হাত কামড়ে কবজি থেকে বিচ্ছিন্ন করে বিচ্ছিন্ন হাতটি খেয়ে ফেলে হায়েনা।

তিনি বলেন, ঘটনাটি ঘটার সঙ্গে সঙ্গেই তাদের নিরাপত্তাকর্মীরা বাচ্চাটাকে ভেটেনারি হাসপাতালে নিয়ে এলে দ্রুততার সঙ্গে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গেই অধিদপ্তর থেকে কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের তত্ত্বাবধায়নে শিশুটির চিকিৎসা করা হচ্ছে। এই ঘটনায় ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তর আলাদা আলাদা দুইটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। হায়েনার নিরাপত্তা বেষ্টনী উঁচু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার পর নিরাপত্তা নিয়ে চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ নতুন করে চিন্তা-ভাবনা করবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে শিশুটির মায়ের দাবি, চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের অবহেলায় আমার বাচ্চার সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটেছে।