ঢাকা ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার

ভবিষ্যৎ সুরক্ষায় সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হওয়া জরুরি

মো.মুহিবুর রহমান, সিলেট
  • Update Time : ১০:৩২:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪
  • / ৩৮ Time View

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী বলেছেন, চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা, প্রবাসী ও সাধারণ জনগণের জন্য সর্বজনীন পেনশন সরকারের একটি মহৎ উদ্যোগ। ভবিষ্যৎ সুরক্ষায় সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হওয়া জরুরি।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সিলেট কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রাঙ্গণে জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির (এপিএ) আওতায় ‘জনগণের কথা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিভাগীয় কমিশনার আরও বলেন, সর্বজনীন পেনশন কার্যক্রমে অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে জনগণ একটি নির্দিষ্ট সময় টাকা জমানোর পর পেনশনের আওতাভুক্ত হবেন এবং সরকারের পক্ষ থেকে আজীবন পেনশন প্রদান করা হবে। এছাড়াও পেনশন ভোগকারীর মৃত্যুর পর তাঁর পরিবার- এ পেনশনের উত্তরাধিকারী হবেন। এজন্য প্রতিটি নাগরিকের নিজের ও পরিবারের ভবিষ্যৎ সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য এ স্কিমের অন্তর্ভুক্ত হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দেবজিৎ সিংহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন জেলা তথ্য অফিসের উপপরিচালক মো. সালাহ উদ্দিন। এতে আরও বক্তব্য দেন সিলেট কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ শেখ মোহাম্মদ নাহিদ নিয়াজ।

সরকার চাকরিজীবী ও জনগণকে একটা সুযোগ দিচ্ছে উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, সর্বজনীন পেনশনের মাধ্যমে জনগণের সামাজিক ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা বৃদ্ধি পাবে। যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা, অবসর ও বার্ধক্যকালীন- এ পেনশন অর্থনৈতিক সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

বর্তমানে সরকার কারিগরি শিক্ষায় গুরুত্ব দিচ্ছে উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার আরও বলেন, নতুন শিক্ষা কারিকুলামে কারিগরি শিক্ষাকে প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। বেকারত্ব কমাতে ও দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে কারিগরি শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম।

প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, মনোযোগ সহকারে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করে নিজেদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করতে হবে। নিজেদের কর্ম দক্ষতার মাধ্যমে দেশের সুনাম বয়ে আনার জন্য সবাইকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করার আহবান জানান তিনি।

Please Share This Post in Your Social Media

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার

ভবিষ্যৎ সুরক্ষায় সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হওয়া জরুরি

Update Time : ১০:৩২:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ ২০২৪

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার আবু আহমদ ছিদ্দীকী বলেছেন, চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা, প্রবাসী ও সাধারণ জনগণের জন্য সর্বজনীন পেনশন সরকারের একটি মহৎ উদ্যোগ। ভবিষ্যৎ সুরক্ষায় সর্বজনীন পেনশন স্কিমে অন্তর্ভুক্ত হওয়া জরুরি।

বৃহস্পতিবার (২১ মার্চ) সিলেট কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রাঙ্গণে জেলা তথ্য অফিসের আয়োজনে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তির (এপিএ) আওতায় ‘জনগণের কথা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

বিভাগীয় কমিশনার আরও বলেন, সর্বজনীন পেনশন কার্যক্রমে অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে জনগণ একটি নির্দিষ্ট সময় টাকা জমানোর পর পেনশনের আওতাভুক্ত হবেন এবং সরকারের পক্ষ থেকে আজীবন পেনশন প্রদান করা হবে। এছাড়াও পেনশন ভোগকারীর মৃত্যুর পর তাঁর পরিবার- এ পেনশনের উত্তরাধিকারী হবেন। এজন্য প্রতিটি নাগরিকের নিজের ও পরিবারের ভবিষ্যৎ সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য এ স্কিমের অন্তর্ভুক্ত হওয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার দেবজিৎ সিংহের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধে সর্বজনীন পেনশন স্কিম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন জেলা তথ্য অফিসের উপপরিচালক মো. সালাহ উদ্দিন। এতে আরও বক্তব্য দেন সিলেট কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ শেখ মোহাম্মদ নাহিদ নিয়াজ।

সরকার চাকরিজীবী ও জনগণকে একটা সুযোগ দিচ্ছে উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার বলেন, সর্বজনীন পেনশনের মাধ্যমে জনগণের সামাজিক ও অর্থনৈতিক নিরাপত্তা বৃদ্ধি পাবে। যেকোনো ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা, অবসর ও বার্ধক্যকালীন- এ পেনশন অর্থনৈতিক সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

বর্তমানে সরকার কারিগরি শিক্ষায় গুরুত্ব দিচ্ছে উল্লেখ করে বিভাগীয় কমিশনার আরও বলেন, নতুন শিক্ষা কারিকুলামে কারিগরি শিক্ষাকে প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। বেকারত্ব কমাতে ও দক্ষ জনশক্তি তৈরি করতে কারিগরি শিক্ষার ভূমিকা অপরিসীম।

প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, মনোযোগ সহকারে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করে নিজেদের দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর করতে হবে। নিজেদের কর্ম দক্ষতার মাধ্যমে দেশের সুনাম বয়ে আনার জন্য সবাইকে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করার আহবান জানান তিনি।