ঢাকা ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাতিলের পথে এশিয়া কাপ

Reporter Name
  • Update Time : ০২:৩৫:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩
  • / ১৭৮ Time View

এবারের এশিয়া কাপে আয়োজক হওয়ার কথা পাকিস্তানের। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে শুরু থেকেই দেশটিতে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। গত কয়েক মাস ধরেই সেটা নিয়ে চলছে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য এবং প্রস্তাবনা। কিন্তু কোনোকিছুতেই যেন অঙ্ক মিলছে না। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে, বিশ্বকাপের বছর গুরুত্বপূর্ণ এই এশিয়া কাপটি বাতিল হয়ে যেতে পারে।
পাকিস্তানি গণমাধ্যমের তথ্যমতে, নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা না হলে এশিয়া কাপে অংশ নিতে চাচ্ছে না ভারত। কিন্তু প্রতিবেশীদের এমন প্রস্তাব কোনোমতেই মানবে না পিসিবি। তাই দেশটির গণমাধ্যম বলছে, শেষ পর্যন্ত হয়তো বাতিল হতে পারে এবারের এশিয়া কাপ।

নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে পাকিস্তানে যেতে চায় না ভারত। সেটা আগেই তারা জানিয়ে দিয়েছে। এমন অবস্থায় ভারতের ম্যাচগুলো নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আর বাকি ম্যাচগুলো পাকিস্তানে আয়োজন করতে রাজি হয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

এই ব্যাপারে কিছুটা সায়ও দিয়েছিলেন বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ। তবে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভা শেষে ভারতে গিয়েই নিজের সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেছেন তিনি। পাকিস্তানের দেয়া এমন মডেলের বিরোধিতাও করেছেন।

পাকিস্তানের গণমাধ্যম বলছে, ভারত আবারও নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এশিয়া কাপ আয়োজন করতে পাকিস্তানকে অনানুষ্ঠানিক প্রস্তাব দিয়েছে। এই প্রস্তাবে রাজি হতে পিসিবিকে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কাও নাকি অনুরোধ করেছে। প্রতিবেদন মতে, এশিয়া কাপ পাকিস্তানে না হলে শ্রীলঙ্কা এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে চায়। এ ছাড়া আরব আমিরাতও এশিয়া কাপ আয়োজন করতে রাজি। তবে পাকিস্তান সে প্রস্তাবে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, মতে না মেলায় শেষ পর্যন্ত যদি এশিয়া কাপ না হয় তবে তারা পাঁচ দলের ভিন্ন একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা করছে ভারত। তবে বাকি দলগুলো কারা হতে পারে সেই ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

বাতিলের পথে এশিয়া কাপ

Update Time : ০২:৩৫:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩

এবারের এশিয়া কাপে আয়োজক হওয়ার কথা পাকিস্তানের। কিন্তু নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে শুরু থেকেই দেশটিতে যেতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। গত কয়েক মাস ধরেই সেটা নিয়ে চলছে পাল্টাপাল্টি মন্তব্য এবং প্রস্তাবনা। কিন্তু কোনোকিছুতেই যেন অঙ্ক মিলছে না। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে, বিশ্বকাপের বছর গুরুত্বপূর্ণ এই এশিয়া কাপটি বাতিল হয়ে যেতে পারে।
পাকিস্তানি গণমাধ্যমের তথ্যমতে, নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা না হলে এশিয়া কাপে অংশ নিতে চাচ্ছে না ভারত। কিন্তু প্রতিবেশীদের এমন প্রস্তাব কোনোমতেই মানবে না পিসিবি। তাই দেশটির গণমাধ্যম বলছে, শেষ পর্যন্ত হয়তো বাতিল হতে পারে এবারের এশিয়া কাপ।

নিরাপত্তার অজুহাত দেখিয়ে পাকিস্তানে যেতে চায় না ভারত। সেটা আগেই তারা জানিয়ে দিয়েছে। এমন অবস্থায় ভারতের ম্যাচগুলো নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আর বাকি ম্যাচগুলো পাকিস্তানে আয়োজন করতে রাজি হয়েছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

এই ব্যাপারে কিছুটা সায়ও দিয়েছিলেন বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়ার (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ। তবে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) সভা শেষে ভারতে গিয়েই নিজের সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেছেন তিনি। পাকিস্তানের দেয়া এমন মডেলের বিরোধিতাও করেছেন।

পাকিস্তানের গণমাধ্যম বলছে, ভারত আবারও নিরপেক্ষ ভেন্যুতে এশিয়া কাপ আয়োজন করতে পাকিস্তানকে অনানুষ্ঠানিক প্রস্তাব দিয়েছে। এই প্রস্তাবে রাজি হতে পিসিবিকে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কাও নাকি অনুরোধ করেছে। প্রতিবেদন মতে, এশিয়া কাপ পাকিস্তানে না হলে শ্রীলঙ্কা এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করতে চায়। এ ছাড়া আরব আমিরাতও এশিয়া কাপ আয়োজন করতে রাজি। তবে পাকিস্তান সে প্রস্তাবে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, মতে না মেলায় শেষ পর্যন্ত যদি এশিয়া কাপ না হয় তবে তারা পাঁচ দলের ভিন্ন একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা করছে ভারত। তবে বাকি দলগুলো কারা হতে পারে সেই ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যায়নি।