ঢাকা ০৪:০৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

ফিলিস্তিনি সরকারের পদত্যাগ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • Update Time : ০৯:০৩:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ৩৩ Time View

ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন অধিকৃত পশ্চিম তীরের কিছু অংশ শাসনকারী প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ এবং তার নেতৃত্বাধীন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ (পিএ) সরকার। খবর আল জাজিরার।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে শতায়েহ বলেন, ‘আমি প্রেসিডেন্ট (মাহমুদ আব্বাস) বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমে অভূতপূর্ব সহিংসতা বৃদ্ধি এবং গাজা উপত্যকায় যুদ্ধ, গণহত্যার প্রতিবাদেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি দেখতে পাচ্ছি- গাজা ভূখণ্ডের পরিস্থিতি এখন আর আগের মতো নেই এবং পরবর্তী পর্যায়ে চ্যালেঞ্জগুলোর জন্য নতুন সরকারি ও রাজনৈতিক ব্যবস্থার প্রয়োজন। যারা গাজার নতুন বাস্তবতাকে বিবেচনা এবং ফিলিস্তিনি ঐক্যের ওপর ভিত্তি করে ফিলিস্তিনে কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করবে।’

ফিলিস্তিনি নেতৃত্বের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে এক প্রতিবেদনে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়া জানিয়েছে, গাজা যুদ্ধ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রেসিডেন্ট আব্বাস নতুন সরকার গঠনের পরিকল্পনা করছেন। এর প্রধান লক্ষ্য হবে গাজাকে সুরক্ষিত করা এবং এর পুনর্গঠনের তদারকি করা। তবে নতুন সরকার বিশেষজ্ঞদের (টেকনোক্র্যাট) নিয়ে গঠিত হবে, রাজনীতিবিদদের নয়।

এ বিষয়ে আব্বাস আরব নেতাদের সঙ্গেও আলোচনা করছেন। জর্ডানের বাদশাহ দ্বিতীয় আবদুল্লাহর সঙ্গে শেষ দেখা করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ দুই সপ্তাহ আগে বলেছিলেন যে “যদি নতুন সরকার গঠনের পরিকল্পনা থাকে” পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া হবে।

সূত্র আরও জানিয়েছে, প্যালেস্টাইন ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মুস্তফাকে একটি নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের জন্য মনোনীত করেছেন আব্বাস।

Please Share This Post in Your Social Media

ফিলিস্তিনি সরকারের পদত্যাগ

Update Time : ০৯:০৩:৪৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন অধিকৃত পশ্চিম তীরের কিছু অংশ শাসনকারী প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ এবং তার নেতৃত্বাধীন ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ (পিএ) সরকার। খবর আল জাজিরার।

সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে শতায়েহ বলেন, ‘আমি প্রেসিডেন্ট (মাহমুদ আব্বাস) বরাবর পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমে অভূতপূর্ব সহিংসতা বৃদ্ধি এবং গাজা উপত্যকায় যুদ্ধ, গণহত্যার প্রতিবাদেই পদত্যাগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘আমি দেখতে পাচ্ছি- গাজা ভূখণ্ডের পরিস্থিতি এখন আর আগের মতো নেই এবং পরবর্তী পর্যায়ে চ্যালেঞ্জগুলোর জন্য নতুন সরকারি ও রাজনৈতিক ব্যবস্থার প্রয়োজন। যারা গাজার নতুন বাস্তবতাকে বিবেচনা এবং ফিলিস্তিনি ঐক্যের ওপর ভিত্তি করে ফিলিস্তিনে কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করবে।’

ফিলিস্তিনি নেতৃত্বের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাতে এক প্রতিবেদনে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়া জানিয়েছে, গাজা যুদ্ধ শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রেসিডেন্ট আব্বাস নতুন সরকার গঠনের পরিকল্পনা করছেন। এর প্রধান লক্ষ্য হবে গাজাকে সুরক্ষিত করা এবং এর পুনর্গঠনের তদারকি করা। তবে নতুন সরকার বিশেষজ্ঞদের (টেকনোক্র্যাট) নিয়ে গঠিত হবে, রাজনীতিবিদদের নয়।

এ বিষয়ে আব্বাস আরব নেতাদের সঙ্গেও আলোচনা করছেন। জর্ডানের বাদশাহ দ্বিতীয় আবদুল্লাহর সঙ্গে শেষ দেখা করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মদ শতায়েহ দুই সপ্তাহ আগে বলেছিলেন যে “যদি নতুন সরকার গঠনের পরিকল্পনা থাকে” পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া হবে।

সূত্র আরও জানিয়েছে, প্যালেস্টাইন ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মুস্তফাকে একটি নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের জন্য মনোনীত করেছেন আব্বাস।