ঢাকা ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

পবিত্র রমজানে বিদ্যালয় খোলা রাখার সরকারী সিদ্ধান্ত বহাল

মোহাম্মদ মোশাররাফ হোছাইন খান
  • Update Time : ০২:৪৪:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৫ Time View

পবিত্র রমজানে বিদ্যালয় খোলা রাখার সরকারী সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছে আপীল বিভাগ।হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছে আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগ আজ মঙ্গলবার (১২ মার্চ) আদেশ দেন।

আজ রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। সঙ্গে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম সাইফুল আলম। অন্যদিকে রিট আবেদনকারী পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মাহমুদা খানম।

পরে আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ বলেন, ‘হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত হওয়ায় স্কুল খোলা থাকবে।’

গত ৮ ফেব্রুয়ারি এক প্রজ্ঞাপনে রমজানের সময় ১৫ দিন সরকারি-বেসরকারি নিম্নমাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম চালু রাখার কথা বলা হয়। অন্যদিকে, রমজানের প্রথম ১০ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।

Please Share This Post in Your Social Media

পবিত্র রমজানে বিদ্যালয় খোলা রাখার সরকারী সিদ্ধান্ত বহাল

Update Time : ০২:৪৪:০২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১২ মার্চ ২০২৪

পবিত্র রমজানে বিদ্যালয় খোলা রাখার সরকারী সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছে আপীল বিভাগ।হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছে আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগ আজ মঙ্গলবার (১২ মার্চ) আদেশ দেন।

আজ রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন। সঙ্গে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এম সাইফুল আলম। অন্যদিকে রিট আবেদনকারী পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী মাহমুদা খানম।

পরে আইনজীবী এ কে এম ফয়েজ বলেন, ‘হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত হওয়ায় স্কুল খোলা থাকবে।’

গত ৮ ফেব্রুয়ারি এক প্রজ্ঞাপনে রমজানের সময় ১৫ দিন সরকারি-বেসরকারি নিম্নমাধ্যমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি কার্যক্রম চালু রাখার কথা বলা হয়। অন্যদিকে, রমজানের প্রথম ১০ দিন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম চালু রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে।