ঢাকা ০২:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
লন্ডনে ‘ডিজিটাল থেকে স্মার্ট বাংলাদেশ অগ্রযাত্রায় আমাদের করণীয়’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত সিলেটে বন্যায় ৭ লাখ ৭২ হাজার শিশু ক্ষতিগ্রস্ত হাঁড়িভাঙ্গা আম ও সবজি সংরক্ষণের মিঠাপুকুরে বিশেষায়িত হিমাগার স্থাপিত হবে – কৃষিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর ভারত-চীন সফরেই তিস্তা মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নের পথ সুগম করার দাবি সৈয়দপুর হিউম্যানিটি ইন ডিস্ট্রেস (হিড) এর কোরবানি প্রোগ্রামে ১৪,৩৯,০০০ টাকার দুর্নীতির অভিযোগ নামাজ-পড়ালেখা নিয়ে শাসন করায় ফাঁস নিল কিশোরী ১ম বঙ্গবন্ধু ইন্দো-বাংলা ফুটসাল সিরিজের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত দেশে নয়টি ড্রেজিং স্টেশন তৈরি করা হচ্ছে : সিলেটে পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী সিলেটে জনদুর্ভোগ অব্যাহত; পানি কোথাও কমছে কোথাও বাড়ছে তিস্তার পানি কমতে শুরু করেছে, বাড়ছে নদীভাঙন

পচা মাংস বিক্রির অভিযোগে ইবিতে রেস্তোরাঁ বন্ধ করল প্রশাসন

মোহাম্মদ হাছান, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়
  • Update Time : ১০:৪১:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪
  • / ৪৩ Time View

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়(ইবি) এর ক্যাম্পাস অভ্যন্তরের জিয়া মোড় এ অবস্থিত রেস্তোরাঁ ‘ঢাকা বিরিয়ানি হাউজ’ এ পঁচা মাংস বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (১৫ মে) বিকাল পাঁচটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া মোড়ে অবস্থিত ঢাকা বিরিয়ানী হাউজে পঁচা খাবার বিক্রির অভিযোগে রেস্তোরাঁটি বন্ধ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি। এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রক্টর ড. মো: আমজাদ হোসেন, মো: ইয়ামিন মাসুম, মো: নাসির মিয়া ও নিরাপত্তা শাখার সদস্যরা।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয়ের মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে রেস্তোরাঁটি বন্ধ করা হয়েছে।

রেস্তোরাঁটিতে দুপুরের খাবার খেতে গিয়েছিলেন নাসিম আহমেদ জয়। তিনি মোরগ পোলাও অর্ডার করে খেতে গিয়ে তার সন্দেহ হয় যে মাংসটি বাসী। পরবর্তীতে তিনি দোকানদারকে অভিযোগ করলে হোটেলের বাবুর্চি ভুল করে দিয়েছেন বলে বিষয়টি শিকার করে দোকান কর্তৃপক্ষ। এতে বেশ ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি প্রক্টরিয়াল বডির নিকট অভিযোগ করেন এবং এ ঘটনার বিচার দাবী করেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয় বলেন, ক্যাম্পাস অভ্যন্তরে একটা রেস্তোরাঁয় এভাবে পঁচা খাবার বিক্রি করছে এটা কখনো মানা যায় নাহ। এভাবে প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীদের ঠকানো হচ্ছে। আমি সাধারণ শিক্ষার্থী হিসেবে এ ঘটনার বিচার চাচ্ছি এবং ঐ দোকান কর্তৃপক্ষ যদি মুচলেকা দিয়ে দোকান চালু করতে পারে তাহলে ব্যবসা চলমান রাখুক।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দোকান কর্তৃপক্ষ বলেন, ‘খাবারটি আমাদের বাবুর্চি আমাদের অগোচরে নতুন খাবারের সাথে একত্রিত করে ফেলেছে। আমরা ভুল শিকার করে নিয়েছি এবং ভবিষ্যতে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবেনা এটা নিশ্চিত করছি।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ড. আমজাদ হোসেন বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে আপাদত রেস্তোরাঁটি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তীতে তদন্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

পচা মাংস বিক্রির অভিযোগে ইবিতে রেস্তোরাঁ বন্ধ করল প্রশাসন

Update Time : ১০:৪১:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়(ইবি) এর ক্যাম্পাস অভ্যন্তরের জিয়া মোড় এ অবস্থিত রেস্তোরাঁ ‘ঢাকা বিরিয়ানি হাউজ’ এ পঁচা মাংস বিক্রির অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (১৫ মে) বিকাল পাঁচটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া মোড়ে অবস্থিত ঢাকা বিরিয়ানী হাউজে পঁচা খাবার বিক্রির অভিযোগে রেস্তোরাঁটি বন্ধ করে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি। এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী প্রক্টর ড. মো: আমজাদ হোসেন, মো: ইয়ামিন মাসুম, মো: নাসির মিয়া ও নিরাপত্তা শাখার সদস্যরা।

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয়ের মৌখিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে রেস্তোরাঁটি বন্ধ করা হয়েছে।

রেস্তোরাঁটিতে দুপুরের খাবার খেতে গিয়েছিলেন নাসিম আহমেদ জয়। তিনি মোরগ পোলাও অর্ডার করে খেতে গিয়ে তার সন্দেহ হয় যে মাংসটি বাসী। পরবর্তীতে তিনি দোকানদারকে অভিযোগ করলে হোটেলের বাবুর্চি ভুল করে দিয়েছেন বলে বিষয়টি শিকার করে দোকান কর্তৃপক্ষ। এতে বেশ ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি প্রক্টরিয়াল বডির নিকট অভিযোগ করেন এবং এ ঘটনার বিচার দাবী করেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয় বলেন, ক্যাম্পাস অভ্যন্তরে একটা রেস্তোরাঁয় এভাবে পঁচা খাবার বিক্রি করছে এটা কখনো মানা যায় নাহ। এভাবে প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীদের ঠকানো হচ্ছে। আমি সাধারণ শিক্ষার্থী হিসেবে এ ঘটনার বিচার চাচ্ছি এবং ঐ দোকান কর্তৃপক্ষ যদি মুচলেকা দিয়ে দোকান চালু করতে পারে তাহলে ব্যবসা চলমান রাখুক।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দোকান কর্তৃপক্ষ বলেন, ‘খাবারটি আমাদের বাবুর্চি আমাদের অগোচরে নতুন খাবারের সাথে একত্রিত করে ফেলেছে। আমরা ভুল শিকার করে নিয়েছি এবং ভবিষ্যতে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবেনা এটা নিশ্চিত করছি।’

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ড. আমজাদ হোসেন বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে আপাদত রেস্তোরাঁটি বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে পরবর্তীতে তদন্ত করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।’