ঢাকা ০৫:১৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
বিমানবন্দর-টঙ্গী থেকে ধারালো অস্ত্রসহ ৮ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার কিশোরগঞ্জে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলের উন্নয়ন খাতের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ সাংবাদিককে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা ও গ্র্যাজুয়েট হতে হবে বেনজীরের আরও ১১৩ দলিলের সম্পদ ও গুলশানের ৪টি ফ্ল্যাট জব্দের আদেশ সুজানগরে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে কাউকে ছাড় দেব না : ইসি রাশেদা ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে একটি বাড়ি থেকে ১২ কোটি রুপির স্বর্ণ জব্দ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রেরণের আহ্বান প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর ঝালকাঠিতে রেমালের প্রভাবে নদীর পানি বেড়েছে ২১৭ নেতাকে বহিষ্কার করল বিএনপি

নীলফামারী জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে বিচারপ্রার্থীদের বিশ্রামাগার ‘ন্যায়কুঞ্জ’ উদ্বোধন

আল-আমিন, নীলফামারী
  • Update Time : ০২:০১:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩
  • / ৩৫৩ Time View

নীলফামারী জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আগত বিচারপ্রার্থীরা স্বস্তিতে বিশ্রাম নিতে পারেন সেজন্য বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট দেশের প্রতিটি জেলায় বিশ্রামাগার নির্মানের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে নীলফামারী জেলা ও দায়রা জজ আদালত চত্বরে বিচারপ্রার্থিদের জন্য বিশ্রামাগারের ভিত্তি¡ প্রস্তর উদ্বোধন করা হয়েছে। যা ন্যায়কুঞ্জ নামে পরিচিত।
শনিবার (৩ জুন/২০২৩) বিকালে জেলা জজ আদালতের কনফারেন্স রুমে বিচারকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা শেষে আদালত প্রাঙ্গণে এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগের বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম। এরপর আদালত প্রাঙ্গণে একটি অর্জুন গাছের চারা রোপন করেন তিনি।
নীলফামারী গণপূর্ত বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, দেশের প্রত্যেক জেলার জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গণে ‘ন্যায়কুঞ্জ’ নামে বিচারপ্রার্থী-বিশ্রামাগার স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৫৩.২২ লাখ টাকা প্রকল্প মুল্য নির্মিত হচ্ছে এ বিশ্রামাগারটি। এক হাজার স্কয়ার ফিটের এ ন্যায়কুঞ্জ’টির নির্মাণে কাজ করবেন নীলফামারী থানা পাড়া এলাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দেওয়ান উজ্জল আহমেদ।
এসময় নীলফামারী জেলা ও দায়রা জজ মোঃ মাহমুদুল করিম, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মোঃ গোলাম সারোয়ার, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক এ.বি.এম. গোলাম রসুল, আপীল বিভাগের অরিরিক্ত রেজিস্ট্রার শেখ মোহাঃ আমিনুল ইসলাম, বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাইফুল ইসলামসহ অন্যান্য বিচারক, জেলা প্রশাসক পঙ্কজ ঘোষ, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম, আইনজীবী, আদালতের কর্মকর্তা- কর্মচারীরা এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ন্যায়কুঞ্জ’র নির্মাণকাজ উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, দেশের সব জেলা জজ আদালতগুলোতে প্রধান বিচারপতির আগ্রহ এবং নির্দেশনায় ন্যায়কুঞ্জ স্থাপনের কাজ শুরু করা হয়েছে। এই ন্যায়কুঞ্জতে দূরদূরান্ত হতে সাক্ষীরাসহ মামলার বিচারপ্রার্থী জনগণ এসে অপেক্ষা করতে পারবে। এই ন্যায়কুঞ্জে দুগ্ধপোষ্য শিশুদের মায়ের জন্য ব্রেস্টফিডিং রুমের আলাদা ব্যবস্থা করা হবে। তাছাড়া এখানে বিচারপ্রার্থী জনগণের জন্য শৌচাগারসহ সুপেয় পানির ব্যবস্থা থাকবে।
তিনি তার বক্তব্যে বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি যে উদ্দেশ্য ন্যায়কুঞ্জ নির্মাণ করার উদ্যোগ নিয়েছেন সে উদ্দেশ্য যেন ব্যাহত না হয় সে বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য সবাইকে নির্দেশনা প্রদান করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

নীলফামারী জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে বিচারপ্রার্থীদের বিশ্রামাগার ‘ন্যায়কুঞ্জ’ উদ্বোধন

Update Time : ০২:০১:৩৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৪ জুন ২০২৩

নীলফামারী জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আগত বিচারপ্রার্থীরা স্বস্তিতে বিশ্রাম নিতে পারেন সেজন্য বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট দেশের প্রতিটি জেলায় বিশ্রামাগার নির্মানের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে নীলফামারী জেলা ও দায়রা জজ আদালত চত্বরে বিচারপ্রার্থিদের জন্য বিশ্রামাগারের ভিত্তি¡ প্রস্তর উদ্বোধন করা হয়েছে। যা ন্যায়কুঞ্জ নামে পরিচিত।
শনিবার (৩ জুন/২০২৩) বিকালে জেলা জজ আদালতের কনফারেন্স রুমে বিচারকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা শেষে আদালত প্রাঙ্গণে এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আপীল বিভাগের বিচারপতি এম, ইনায়েতুর রহিম। এরপর আদালত প্রাঙ্গণে একটি অর্জুন গাছের চারা রোপন করেন তিনি।
নীলফামারী গণপূর্ত বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, দেশের প্রত্যেক জেলার জেলা ও দায়রা জজ আদালত প্রাঙ্গণে ‘ন্যায়কুঞ্জ’ নামে বিচারপ্রার্থী-বিশ্রামাগার স্থাপন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৫৩.২২ লাখ টাকা প্রকল্প মুল্য নির্মিত হচ্ছে এ বিশ্রামাগারটি। এক হাজার স্কয়ার ফিটের এ ন্যায়কুঞ্জ’টির নির্মাণে কাজ করবেন নীলফামারী থানা পাড়া এলাকার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দেওয়ান উজ্জল আহমেদ।
এসময় নীলফামারী জেলা ও দায়রা জজ মোঃ মাহমুদুল করিম, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক মোঃ গোলাম সারোয়ার, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক এ.বি.এম. গোলাম রসুল, আপীল বিভাগের অরিরিক্ত রেজিস্ট্রার শেখ মোহাঃ আমিনুল ইসলাম, বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সাইফুল ইসলামসহ অন্যান্য বিচারক, জেলা প্রশাসক পঙ্কজ ঘোষ, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম, আইনজীবী, আদালতের কর্মকর্তা- কর্মচারীরা এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
ন্যায়কুঞ্জ’র নির্মাণকাজ উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, দেশের সব জেলা জজ আদালতগুলোতে প্রধান বিচারপতির আগ্রহ এবং নির্দেশনায় ন্যায়কুঞ্জ স্থাপনের কাজ শুরু করা হয়েছে। এই ন্যায়কুঞ্জতে দূরদূরান্ত হতে সাক্ষীরাসহ মামলার বিচারপ্রার্থী জনগণ এসে অপেক্ষা করতে পারবে। এই ন্যায়কুঞ্জে দুগ্ধপোষ্য শিশুদের মায়ের জন্য ব্রেস্টফিডিং রুমের আলাদা ব্যবস্থা করা হবে। তাছাড়া এখানে বিচারপ্রার্থী জনগণের জন্য শৌচাগারসহ সুপেয় পানির ব্যবস্থা থাকবে।
তিনি তার বক্তব্যে বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি যে উদ্দেশ্য ন্যায়কুঞ্জ নির্মাণ করার উদ্যোগ নিয়েছেন সে উদ্দেশ্য যেন ব্যাহত না হয় সে বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য সবাইকে নির্দেশনা প্রদান করেন।