ঢাকা ০৮:৪২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

নীলফামারীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক

আল-আমিন,নীলফামারী
  • Update Time : ০৪:৩৮:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩
  • / ১৯১ Time View

নীলফামারীর ডোমারে এক সন্তানের জননী কবিতা রানী(৩৫)নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে স্বামী সুভাষ চন্দ্র শীল(৪২) এর বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার সন্ধায় জেলার ডোমার উপজেলার সদর ইউনিয়নের পাগলা বাজার এলাকার নাপিত পাড়ায় ঘটনাটি ঘটে।

নিহত কবিতা রানী বোদা উপজেলার ফুলতলা নাউয়া পাড়া এলাকার বিরেন্দ্র শর্মার মেয়ে। এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী সুভাষকে আটক করেছে পুলিশ। আটক সুভাষ চন্দ্র ডোমার সদর ইউনিয়নের চিলাই নাপিত পাড়া এলাকার অভিনয় চন্দ্র শীল(ধুন্দু) এর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, ২০০২ সালে সুভাষ চন্দ্র শীলের সাথে বোদা উপজেলার ফুলতলা এলাকার বিরেন্দ্র নাথের মেয়ে কবিতার সাথে বিয়ে হয়। সংসার জীবনে জীবন চন্দ্র শীল (১৩) নামে এক পুত্র সন্তান রয়েছে তাদের বিয়ের পর থেকেই প্রতিনিয়ত তাদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো।

বৃহস্পতিবার (১৮ মে) দুপুরের দিকে ঝণের টাকা নিয়ে সুভাষের সাথে তার স্ত্রীর বাক বিতন্ডা ঘটে। এরেই এক পর্যায়ে সুভাষ তার স্ত্রীকে মারধর করার পাশাপাশি গলা টিপে ধরে এলোপাথারী কিল-ঘুষি মারতে থাকে। মারধর করায় তার স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পরে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কবিতা রানী অনবরত বমি করতে থাকলে তার স্বামী সুভাষ তাকে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ঘটনায় ডোমার থানা পুলিশ দেবীগঞ্জ হাসপাতাল থেকে সুভাষকে আটক করে।

নিহত কবিতা রানির ভাই সনাতন শর্মা বাদী হয়ে ডোমার থানায় সুভাষের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং -০৭।

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদ উন নবী মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান শুক্রবার লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে আসামি সুভাষ চন্দ্রকে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার দুপুরে সুভাষ চন্দ্রকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

নীলফামারীতে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা, স্বামী আটক

Update Time : ০৪:৩৮:১৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ মে ২০২৩

নীলফামারীর ডোমারে এক সন্তানের জননী কবিতা রানী(৩৫)নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে স্বামী সুভাষ চন্দ্র শীল(৪২) এর বিরুদ্ধে।

বৃহস্পতিবার সন্ধায় জেলার ডোমার উপজেলার সদর ইউনিয়নের পাগলা বাজার এলাকার নাপিত পাড়ায় ঘটনাটি ঘটে।

নিহত কবিতা রানী বোদা উপজেলার ফুলতলা নাউয়া পাড়া এলাকার বিরেন্দ্র শর্মার মেয়ে। এ ঘটনায় ঘাতক স্বামী সুভাষকে আটক করেছে পুলিশ। আটক সুভাষ চন্দ্র ডোমার সদর ইউনিয়নের চিলাই নাপিত পাড়া এলাকার অভিনয় চন্দ্র শীল(ধুন্দু) এর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, ২০০২ সালে সুভাষ চন্দ্র শীলের সাথে বোদা উপজেলার ফুলতলা এলাকার বিরেন্দ্র নাথের মেয়ে কবিতার সাথে বিয়ে হয়। সংসার জীবনে জীবন চন্দ্র শীল (১৩) নামে এক পুত্র সন্তান রয়েছে তাদের বিয়ের পর থেকেই প্রতিনিয়ত তাদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো।

বৃহস্পতিবার (১৮ মে) দুপুরের দিকে ঝণের টাকা নিয়ে সুভাষের সাথে তার স্ত্রীর বাক বিতন্ডা ঘটে। এরেই এক পর্যায়ে সুভাষ তার স্ত্রীকে মারধর করার পাশাপাশি গলা টিপে ধরে এলোপাথারী কিল-ঘুষি মারতে থাকে। মারধর করায় তার স্ত্রী অসুস্থ হয়ে পরে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কবিতা রানী অনবরত বমি করতে থাকলে তার স্বামী সুভাষ তাকে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্রেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ঘটনায় ডোমার থানা পুলিশ দেবীগঞ্জ হাসপাতাল থেকে সুভাষকে আটক করে।

নিহত কবিতা রানির ভাই সনাতন শর্মা বাদী হয়ে ডোমার থানায় সুভাষের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং -০৭।

ডোমার থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদ উন নবী মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান শুক্রবার লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে আসামি সুভাষ চন্দ্রকে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

শুক্রবার দুপুরে সুভাষ চন্দ্রকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।