ঢাকা ০২:৫৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

নড়াইলে উত্যক্তকরণের প্রতিবাদ করায় কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা, ২ বন্ধু আহত

নড়াইল প্রতিনিধি
  • Update Time : ১০:২৪:০৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪
  • / ৪৩ Time View

উত্যক্তকরণের প্রতিবাদ করায় নড়াইলের নড়াগাতী থানার খাশিয়াল ইউনিয়নের তালবাড়িয়া গ্রামে নিলয় মোল্যাকে (১৫) কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

বন্ধুদের সঙ্গে তালবাড়িয়া এলাকায় ওয়াজ মাহফিল শুনতে এসে শুক্রবার (১ মার্চ) রাত ১১টার দিকে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিলয়ের বন্ধু টোনা গ্রামের তামিম ও অপু আহত হয়েছেন।

নিহত নিলয় টোনা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য সুলতান আহমেদ পিকু মোল্যার ছেলে। মাদরাসা শিক্ষার্থী নিলয় প্রায় দুই বছর আগে পড়ালেখা বাদ দিয়েছে বলে তার পরিবার জানিয়েছে।

নিলয়ের পরিবারসহ বন্ধুরা জানায়, প্রায় ২০ দিন আগে টোনা গ্রামের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে পাশের পাটনা গ্রামের কামরুল খানের ছেলে শাকিলসহ তার বন্ধুরা। নিলয় মোল্যাসহ তার বন্ধুরা এ উত্যক্তকরণের প্রতিবাদ জানায়। এর জের ধরে শুক্রবার রাতে সুযোগ বুঝে নিলয়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

নিলয়ের সঙ্গে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী মেজবাহ ও অপু খন্দকারসহ কয়েকজন জানান, ওয়াজ মাহফিলের পাশে ডেকে নিয়ে পাটনার শাকিল খান, তালবাড়িয়া গ্রামের সবুজ খান, মুসা শেখ ও অশ্রু দাসসহ কয়েকজন প্রথমে নিলয়কে কিল-ঘুষি মারে। আমরা ঠেকাতে গেলেও মারধর করে। একপর্যায়ে নিলয়ের কোমরের ওপরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় তারা।

নিহত নিলয়ের বাবা সুলতান আহমেদ পিকু মোল্যা, অসুস্থ মা লুৎফন নাহার ও বোন শারমিনসহ পরিবারের সবাই এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি করেন।
নড়াগাতি থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নিলয় হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media

নড়াইলে উত্যক্তকরণের প্রতিবাদ করায় কিশোরকে কুপিয়ে হত্যা, ২ বন্ধু আহত

Update Time : ১০:২৪:০৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২ মার্চ ২০২৪

উত্যক্তকরণের প্রতিবাদ করায় নড়াইলের নড়াগাতী থানার খাশিয়াল ইউনিয়নের তালবাড়িয়া গ্রামে নিলয় মোল্যাকে (১৫) কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

বন্ধুদের সঙ্গে তালবাড়িয়া এলাকায় ওয়াজ মাহফিল শুনতে এসে শুক্রবার (১ মার্চ) রাত ১১টার দিকে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিলয়ের বন্ধু টোনা গ্রামের তামিম ও অপু আহত হয়েছেন।

নিহত নিলয় টোনা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ সদস্য সুলতান আহমেদ পিকু মোল্যার ছেলে। মাদরাসা শিক্ষার্থী নিলয় প্রায় দুই বছর আগে পড়ালেখা বাদ দিয়েছে বলে তার পরিবার জানিয়েছে।

নিলয়ের পরিবারসহ বন্ধুরা জানায়, প্রায় ২০ দিন আগে টোনা গ্রামের বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে পাশের পাটনা গ্রামের কামরুল খানের ছেলে শাকিলসহ তার বন্ধুরা। নিলয় মোল্যাসহ তার বন্ধুরা এ উত্যক্তকরণের প্রতিবাদ জানায়। এর জের ধরে শুক্রবার রাতে সুযোগ বুঝে নিলয়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

নিলয়ের সঙ্গে থাকা প্রত্যক্ষদর্শী মেজবাহ ও অপু খন্দকারসহ কয়েকজন জানান, ওয়াজ মাহফিলের পাশে ডেকে নিয়ে পাটনার শাকিল খান, তালবাড়িয়া গ্রামের সবুজ খান, মুসা শেখ ও অশ্রু দাসসহ কয়েকজন প্রথমে নিলয়কে কিল-ঘুষি মারে। আমরা ঠেকাতে গেলেও মারধর করে। একপর্যায়ে নিলয়ের কোমরের ওপরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায় তারা।

নিহত নিলয়ের বাবা সুলতান আহমেদ পিকু মোল্যা, অসুস্থ মা লুৎফন নাহার ও বোন শারমিনসহ পরিবারের সবাই এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি করেন।
নড়াগাতি থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, নিলয় হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।