ঢাকা ০৭:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঢাকা রিজেন্সিতে ট্রাভেল ব্লগারদের মিলনমেলা

নওরোজ লাইফস্টাইল ডেস্ক
  • Update Time : ০৭:১২:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর ২০২৩
  • / ১০৯ Time View

ভ্রমণ করতে কে না ভালোবাসে! প্রত্যেকেই তার ছক বাধা জীবনের ফাঁকে ফাঁকে পরিবার, বন্ধুবান্ধব, সহকর্মী, আত্মীয়-স্বজন নিয়ে প্রকৃতি দেখার আশায় বেরিয়ে পড়তে ভালোবাসেন। কিন্তু অজানা এক স্থান ঘুরতে গেলে একজন গাইডের প্রয়োজন হয়। তা না হলে কিভাবে তারা অজানা সেই স্থানটি ঘুরে দেখবেন। এক সময় টাকা খরচ করে গাইড ম্যানেজ করা হতো। এখনও অনেকেই এই জাতীয় গাইডের সহায়তা নিয়ে থাকেন।

কিন্তু বর্তমান সময়ে, সোশ্যাল মিডিয়ার বদৌলতে সেসব গাইডের প্রয়োজন কমে গেছে। ইউটিউব-ফেসবুক ঘাঁটলেই এখন প্রচুর ট্রাভেল কন্টেন্ট পাওয়া যায় যেখানে ট্যুরের সব রকম গাইডলাইন সুন্দরভাবে গোছানো থাকে। এমনকি, টুরে যেয়ে কখন কি খেলে ভালো হবে, কোন রিসোর্টে খরচ কেমন হবে সেইটাও বলা থাকে। যার কারণে, এই ট্রাভেল ব্লগগুলো দেখলে আমাদের ভ্রমণ পরিকল্পনা করতে একদম সহজ হয়ে যায়।

বাংলাদেশের যেসব ব্যক্তিত্ব নিজ উদ্যোগে এই কাজ গুলো করে যাচ্ছেন তাঁদেরকে নিয়ে গত ২৫ নভেম্বর শীতের বিকেলে দেশের জনপ্রিয় পাঁচ তারা হোটেল- ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্টের রুফটপ রেস্তোরাঁ- গ্রিল অন দা স্ক্যাইলাইনে আয়োজন করে ঢাকা রিজেন্সি প্রেজেন্টস ট্রাভেল ব্লগার্স মিটআপ ।

বলতে পারেন সেদিন সেখানে এক তারার মেলা বসেছিল, দেশের সব জনপ্রিয় ট্রাভেল ব্লগাররা এসেছিলেন সেদিন। রিজেন্সির গ্রিল অন দা স্কাইলাইনে রয়েছে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ, যে রেস্টুরেন্টের এক পাশ থেকে দেখা যায় হজরত শাহজালাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের তৃতীয় টার্মিনালের সৌন্দর্য এবং অন্যপাশে ঢাকার নয়নাভিরাম এলিভেটেড এক্সপ্রেস।

এই মিটাপে যেসব ব্লগাররা এসেছিলেন তাদের ইউটিউব চ্যানেলের নাম হল, আরাফ ইন্তিসার দীপ্ত, বাংলাদেশি ফুড রিভিউয়ার, ডাক্তার ফুডি, ডাক্তার সালমান মাহি রুহুল কাওসার, লাবিব হোসেন জয়, লাবিব ইত্তিহাদুল, লো কস্ট টুর সাজেশন, মিঃ মিক্সার্স ওয়ার্ল্ড, নয়ন মজুমদার, পেটুক কাপল, সালাহউদ্দিন সুমন, সায়েমস ওয়ার্ল্ড, স্বপন অন বোর্ড এবং ট্রাভেল উইথ শিশির দেব।

দুপুরে মিটাপ শুরু হয় এবং আড্ডা চলে রাত অব্দি। দীর্ঘ এই আড্ডায় ট্রাভেল ব্লগাররা নানা বিষয়ে কথা বলেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল, কিভাবে তাঁদের ব্লগগুলোকে আরও উন্নত করা যায়, আরও কোন কোন প্লেসগুলো ভ্রমণপিপাসু মানুষের সামনে তুলে আনা যায়, ট্রাভেল ব্লগিং নিয়ে কার কি ভবিষ্যৎ প্ল্যান ইত্যাদি।

আলোচনার এক পর্যায়ে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নিয়েও কথা ওঠে। আরও সুন্দরভাবে ব্লগ করার জন্য উপস্থিত সব ব্লগাররা বাংলাদেশ ট্যুরিজম বিষয়ক সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর সহযোগিতা চান। কারণ একটা ব্লগ তৈরি করতে প্রচুর টাকা এবং সময়ের প্রয়োজন হয়। তাছাড়া ব্লগারদের মাধ্যমেই পুরো দেশ, সারা পৃথিবীর কাছে উপস্থাপিত হচ্ছে যেটার দায়িত্ব মূলত বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের। তাই স্বভাবতই এমন মহৎ কাজে তারা ট্যুরিজম বোর্ডসহ বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন।

গ্রিল অন দ্য স্কাই লাইনের মুখরোচক ও লোভনীয় বার-বি-কিউ ব্যুফে ডিনারের সাথে আয়োজনটির অন্যতম চমক ছিল র‌্যাফেল ড্র- যেখানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এর সৌজন্যে ছিল প্রথম পুরস্কার ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকার কাপল এয়ার টিকিট এবং ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্টের সৌজন্যে ছিল দ্বিতীয় পুরস্কার ঢাকা রিজেন্সির সর্বোচ্চ রুম ক্যাটাগরি- প্রেসিডেনশিয়াল সুট-এ পরিবারের সাথে একরাত থাকাসহ জনপ্রিয় গ্রান্ডিউজ রেস্টুরেন্টে বুফে খাবারের সুবিধা এবং তৃতীয় পুরস্কার ছিল এয়ার আস্ত্রা এর সৌজন্যে ঢাকা-কক্সবাজার-ঢাকা কাপল এয়ার টিকেট।

উল্লেখ্য, এই চমৎকার আয়োজনটির সমন্বয়কারীর দায়িত্বে ছিলেন সায়েমস ওয়ার্ল্ডের স্বত্বাধিকারী ট্রাভেল ব্লগার আবু সায়েম চৌধুরী, যাবতীয় কাজের সহযোগিতায় ছিলেন ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্টের সেলস এন্ড মার্কেটিং ডিরেক্টর মাহমুদ হাসান এবং তাঁর টিম। আকর্ষণীয় এই প্রোগ্রামটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে #TVM2023 লিখে সার্চ করুন।

Please Share This Post in Your Social Media

ঢাকা রিজেন্সিতে ট্রাভেল ব্লগারদের মিলনমেলা

Update Time : ০৭:১২:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ নভেম্বর ২০২৩

ভ্রমণ করতে কে না ভালোবাসে! প্রত্যেকেই তার ছক বাধা জীবনের ফাঁকে ফাঁকে পরিবার, বন্ধুবান্ধব, সহকর্মী, আত্মীয়-স্বজন নিয়ে প্রকৃতি দেখার আশায় বেরিয়ে পড়তে ভালোবাসেন। কিন্তু অজানা এক স্থান ঘুরতে গেলে একজন গাইডের প্রয়োজন হয়। তা না হলে কিভাবে তারা অজানা সেই স্থানটি ঘুরে দেখবেন। এক সময় টাকা খরচ করে গাইড ম্যানেজ করা হতো। এখনও অনেকেই এই জাতীয় গাইডের সহায়তা নিয়ে থাকেন।

কিন্তু বর্তমান সময়ে, সোশ্যাল মিডিয়ার বদৌলতে সেসব গাইডের প্রয়োজন কমে গেছে। ইউটিউব-ফেসবুক ঘাঁটলেই এখন প্রচুর ট্রাভেল কন্টেন্ট পাওয়া যায় যেখানে ট্যুরের সব রকম গাইডলাইন সুন্দরভাবে গোছানো থাকে। এমনকি, টুরে যেয়ে কখন কি খেলে ভালো হবে, কোন রিসোর্টে খরচ কেমন হবে সেইটাও বলা থাকে। যার কারণে, এই ট্রাভেল ব্লগগুলো দেখলে আমাদের ভ্রমণ পরিকল্পনা করতে একদম সহজ হয়ে যায়।

বাংলাদেশের যেসব ব্যক্তিত্ব নিজ উদ্যোগে এই কাজ গুলো করে যাচ্ছেন তাঁদেরকে নিয়ে গত ২৫ নভেম্বর শীতের বিকেলে দেশের জনপ্রিয় পাঁচ তারা হোটেল- ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্টের রুফটপ রেস্তোরাঁ- গ্রিল অন দা স্ক্যাইলাইনে আয়োজন করে ঢাকা রিজেন্সি প্রেজেন্টস ট্রাভেল ব্লগার্স মিটআপ ।

বলতে পারেন সেদিন সেখানে এক তারার মেলা বসেছিল, দেশের সব জনপ্রিয় ট্রাভেল ব্লগাররা এসেছিলেন সেদিন। রিজেন্সির গ্রিল অন দা স্কাইলাইনে রয়েছে মনোমুগ্ধকর পরিবেশ, যে রেস্টুরেন্টের এক পাশ থেকে দেখা যায় হজরত শাহজালাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টের তৃতীয় টার্মিনালের সৌন্দর্য এবং অন্যপাশে ঢাকার নয়নাভিরাম এলিভেটেড এক্সপ্রেস।

এই মিটাপে যেসব ব্লগাররা এসেছিলেন তাদের ইউটিউব চ্যানেলের নাম হল, আরাফ ইন্তিসার দীপ্ত, বাংলাদেশি ফুড রিভিউয়ার, ডাক্তার ফুডি, ডাক্তার সালমান মাহি রুহুল কাওসার, লাবিব হোসেন জয়, লাবিব ইত্তিহাদুল, লো কস্ট টুর সাজেশন, মিঃ মিক্সার্স ওয়ার্ল্ড, নয়ন মজুমদার, পেটুক কাপল, সালাহউদ্দিন সুমন, সায়েমস ওয়ার্ল্ড, স্বপন অন বোর্ড এবং ট্রাভেল উইথ শিশির দেব।

দুপুরে মিটাপ শুরু হয় এবং আড্ডা চলে রাত অব্দি। দীর্ঘ এই আড্ডায় ট্রাভেল ব্লগাররা নানা বিষয়ে কথা বলেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল, কিভাবে তাঁদের ব্লগগুলোকে আরও উন্নত করা যায়, আরও কোন কোন প্লেসগুলো ভ্রমণপিপাসু মানুষের সামনে তুলে আনা যায়, ট্রাভেল ব্লগিং নিয়ে কার কি ভবিষ্যৎ প্ল্যান ইত্যাদি।

আলোচনার এক পর্যায়ে বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড এবং সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নিয়েও কথা ওঠে। আরও সুন্দরভাবে ব্লগ করার জন্য উপস্থিত সব ব্লগাররা বাংলাদেশ ট্যুরিজম বিষয়ক সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর সহযোগিতা চান। কারণ একটা ব্লগ তৈরি করতে প্রচুর টাকা এবং সময়ের প্রয়োজন হয়। তাছাড়া ব্লগারদের মাধ্যমেই পুরো দেশ, সারা পৃথিবীর কাছে উপস্থাপিত হচ্ছে যেটার দায়িত্ব মূলত বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের। তাই স্বভাবতই এমন মহৎ কাজে তারা ট্যুরিজম বোর্ডসহ বাংলাদেশ সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন।

গ্রিল অন দ্য স্কাই লাইনের মুখরোচক ও লোভনীয় বার-বি-কিউ ব্যুফে ডিনারের সাথে আয়োজনটির অন্যতম চমক ছিল র‌্যাফেল ড্র- যেখানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স এর সৌজন্যে ছিল প্রথম পুরস্কার ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকার কাপল এয়ার টিকিট এবং ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্টের সৌজন্যে ছিল দ্বিতীয় পুরস্কার ঢাকা রিজেন্সির সর্বোচ্চ রুম ক্যাটাগরি- প্রেসিডেনশিয়াল সুট-এ পরিবারের সাথে একরাত থাকাসহ জনপ্রিয় গ্রান্ডিউজ রেস্টুরেন্টে বুফে খাবারের সুবিধা এবং তৃতীয় পুরস্কার ছিল এয়ার আস্ত্রা এর সৌজন্যে ঢাকা-কক্সবাজার-ঢাকা কাপল এয়ার টিকেট।

উল্লেখ্য, এই চমৎকার আয়োজনটির সমন্বয়কারীর দায়িত্বে ছিলেন সায়েমস ওয়ার্ল্ডের স্বত্বাধিকারী ট্রাভেল ব্লগার আবু সায়েম চৌধুরী, যাবতীয় কাজের সহযোগিতায় ছিলেন ঢাকা রিজেন্সি হোটেল এন্ড রিসোর্টের সেলস এন্ড মার্কেটিং ডিরেক্টর মাহমুদ হাসান এবং তাঁর টিম। আকর্ষণীয় এই প্রোগ্রামটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে #TVM2023 লিখে সার্চ করুন।