ঢাকা ০৭:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিএনপির ৩ দিনের কর্মসূচি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৬:২৩:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৬৪ Time View

ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। আজ (১১ সেপ্টেম্বর) সোমবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

কর্মসূচি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আগামী তিনদিন দেশের সকল মহানগরে লিফলেট বিতরণ করা হবে। আগামীকাল মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় বিএনপি নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে লিফলেট বিতরণ করবেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রিজভী বলেন, ডেঙ্গুতে মৃত্যু কমছে না। এডিস মশা বাহিত ডেঙ্গু রোগ সারা বছরব্যাপী আক্রান্ত করে, বর্ষা ও শরৎ মৌসুমে এর প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। সেপ্টেম্বরের শুরু থেকেই ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গণমাধ্যমের হিসাবানুযায়ী- গত জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লক্ষ পঁয়তাল্লিশ হাজারেরও অধিক। বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থার পর্যালোচনা বলছে যে, ৫৫ শতাংশ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে পৌঁছার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মৃত্যুবরণ করছে। বর্তমানে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা কমে যাওয়ার কোনো লক্ষণ নেই। আরও কিছুদিন এই রোগের বিস্তার হতে পারে বলে স্বাস্থ্যবিদরা মনে করছেন। আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা না কমলে মৃত্যুর সংখ্যাও কমবে না।

তিনি বলেন, বারবার এই ভয়াবহ রোগের পুনরাবৃত্তি হওয়া সত্বেও সরকারের আগাম কোনো সতর্কতা বা পূর্বাভাস দেওয়া ও প্রতিরোধের কোনো চেষ্টা করা হয়নি। এই প্রাণবিনাশী রোগ প্রতিরোধে সরকারের আগাম প্রস্তুতি থাকলে বর্তমানে মহামারী পরিস্থিতির উদ্ভব হতো না। দেশে ফ্যাসিস্ট সরকার জনগণের প্রাণের তোয়াক্কা করে না। নিজেদের ক্ষমতা নিরঙ্কুশ করার জন্যই বরং জনতার লাশের সারি বিস্তৃত করে। এ বছর বিস্ময়কর ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাবে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। অথচ ওই রোগ প্রতিরোধে সরকারের কোনো উদ্যোগ নেই। এই রোগ নির্নয়ে নিম্নমানের কীট ও চিকিৎসা সরঞ্জামাদির কারণে রোগীদের বেহাল দশা। প্রতিদিনই এত রোগী বাড়ছে যে, হাসপাতালে ঠাঁই হচ্ছে না। এই ফ্যাসিষ্ট সরকারের মানবদরদী সত্তার অভাবের কারণেই জনগণের জীবন আজ সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে। এই শোচনীয় অবস্থার জন্য অবৈধ শাসকগোষ্ঠী ও তাদের সাঙ্গ-পাঙ্গরাই দায়ী।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক মো. আব্দুস সালাম, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ, বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম, সহস্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদকা ডা. পারভেজ রেজা কাকন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Please Share This Post in Your Social Media

ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিএনপির ৩ দিনের কর্মসূচি

Update Time : ০৬:২৩:৪৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ডেঙ্গু রোগ প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে তিনদিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। আজ (১১ সেপ্টেম্বর) সোমবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

কর্মসূচি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আগামী তিনদিন দেশের সকল মহানগরে লিফলেট বিতরণ করা হবে। আগামীকাল মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে দশটায় বিএনপি নয়াপল্টন কার্যালয়ের সামনে লিফলেট বিতরণ করবেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রিজভী বলেন, ডেঙ্গুতে মৃত্যু কমছে না। এডিস মশা বাহিত ডেঙ্গু রোগ সারা বছরব্যাপী আক্রান্ত করে, বর্ষা ও শরৎ মৌসুমে এর প্রকোপ বৃদ্ধি পায়। সেপ্টেম্বরের শুরু থেকেই ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। গণমাধ্যমের হিসাবানুযায়ী- গত জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক লক্ষ পঁয়তাল্লিশ হাজারেরও অধিক। বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থার পর্যালোচনা বলছে যে, ৫৫ শতাংশ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে পৌঁছার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মৃত্যুবরণ করছে। বর্তমানে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা কমে যাওয়ার কোনো লক্ষণ নেই। আরও কিছুদিন এই রোগের বিস্তার হতে পারে বলে স্বাস্থ্যবিদরা মনে করছেন। আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা না কমলে মৃত্যুর সংখ্যাও কমবে না।

তিনি বলেন, বারবার এই ভয়াবহ রোগের পুনরাবৃত্তি হওয়া সত্বেও সরকারের আগাম কোনো সতর্কতা বা পূর্বাভাস দেওয়া ও প্রতিরোধের কোনো চেষ্টা করা হয়নি। এই প্রাণবিনাশী রোগ প্রতিরোধে সরকারের আগাম প্রস্তুতি থাকলে বর্তমানে মহামারী পরিস্থিতির উদ্ভব হতো না। দেশে ফ্যাসিস্ট সরকার জনগণের প্রাণের তোয়াক্কা করে না। নিজেদের ক্ষমতা নিরঙ্কুশ করার জন্যই বরং জনতার লাশের সারি বিস্তৃত করে। এ বছর বিস্ময়কর ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাবে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। অথচ ওই রোগ প্রতিরোধে সরকারের কোনো উদ্যোগ নেই। এই রোগ নির্নয়ে নিম্নমানের কীট ও চিকিৎসা সরঞ্জামাদির কারণে রোগীদের বেহাল দশা। প্রতিদিনই এত রোগী বাড়ছে যে, হাসপাতালে ঠাঁই হচ্ছে না। এই ফ্যাসিষ্ট সরকারের মানবদরদী সত্তার অভাবের কারণেই জনগণের জীবন আজ সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে। এই শোচনীয় অবস্থার জন্য অবৈধ শাসকগোষ্ঠী ও তাদের সাঙ্গ-পাঙ্গরাই দায়ী।

সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক মো. আব্দুস সালাম, জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনার, ডক্টরস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ, বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম, সহস্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদকা ডা. পারভেজ রেজা কাকন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।