ঢাকা ০৮:১২ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
সন্তানদের নতুন জামা পরিয়ে রাতে ঘর থেকে বের হয়ে আর ফিরলেন না বাবা প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্স নীতির ফলে দেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মুল হয়েছেঃ সিলেটে আইজিপি বড় পরিসরে আর. কে. মিশন রোডে ব্র্যাক ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন সৌদিতে প্রথমবারের মতো সুইমস্যুট পরে র‌্যাম্পে হাঁটলেন মডেলরা ‘আয়রনম্যান’ চরিত্রে ফিরতে ‘আপত্তি নেই’ রবার্ট ডাউনি জুনিয়রের বাংলাদেশের গণতন্ত্র ধ্বংসের জন্য ভারত সরকার দায়ী : কর্নেল অলি বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র সিরিজ নিয়ে শঙ্কা কাঠালিয়ায় ডাকাতের গুলিতে আহত ২ বিএনপি একটা জালিয়ত রাজনৈতিক দল : পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেয়র তাপস মনগড়া ও অসত্য বক্তব্য দিচ্ছেন : সাঈদ খোকন

টঙ্গীতে বিনিয়োগকৃত অর্থ আদায়ের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

মোঃ হানিফ হোসেন
  • Update Time : ০৮:৫৮:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪
  • / ২২ Time View

সমর্পণ প্রপার্টিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোবারক করিমের বিচার ও অর্থ আদায়ের দাবীতে টঙ্গীতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৪ মে) টঙ্গী সিটি প্রেসক্লাবের হলরুমে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন ভুক্তভোগী বিনিয়োগকারী গিয়াস উদ্দিন ও ওয়ালিউল হাসানতসহ তার পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে ওয়ালিউল হাসানত লিখিত বক্তব্যে বলেন, সমর্পণ প্রপার্টিজ লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোবারক জমি ও ফ্ল্যাট ক্রয়-বিক্রয় ব্যবসার বিনিয়োগে মুনাফার কথা বলে প্রতারণা করে আসছে। বিনিয়োগকৃত অর্থ ও ন্যয্য লভ্যাংশ ফেরত না দিয়ে চেক জালিয়াতি, প্রতারনা ও অর্থ আত্মসাতের উদ্দেশ্যে হুমকি দিয়ে আসছে।

২০১৯ সালে মোবারক পাওনাদারদের কোটি কোটি টাকা না দিয়ে গোপনে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া পালিয়ে যায় এবং সেখানে গিয়ে সহযোগীদের দ্বারা গোপনে ব্যবসা পরিচালনা করে। এরপর বাংলাদেশে এসে সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা পুনরায় ব্যবসা শুরু করেন তিনি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, গত ২৬শে এপ্রিল ২০২৪ বিকেল ৫টায় মোবারক বিনিয়োগকারী গিয়াস উদ্দিনের ৮২ লাখ ৫৩ হাজার টাকা পাওনার বিষয়ে আলোচনায় বসার কথা থাকলেও কৌশলে পালিয়ে যায় এবং গিয়াস উদ্দিনের বাসায় ওই দিন রাতে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা চালাতে গিয়ে ব্যর্থ হয়। মোবারক ব্ল্যাকমেইলের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন বানোয়াট, ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বিনিয়োগকারীদের মানহানী করার উদ্দেশ্যে একটি মানববন্ধন করেন। অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে ২৯ এপ্রিল বিনিযোগকারী গিয়াস উদ্দিন টঙ্গী পূর্ব থানায় মোবারকের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। মোবারক যেন দেশ ছেড়ে পালাতে না পারেন সেজন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ভুক্তভোগী বিনিয়োগকারীরা।

এ বিষয়ে সমর্পণ প্রপার্টিজ লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অভিযুক্ত মোবারক করিম বলেন, ব্যবসায়ীক লোকসানের কারনে আমি প্রায় দেউলিয়া হয়ে গেছি। তবুও পাওনাদারদের টাকা পরিশোধ করতে আমি দেশে এসেছি। তাদের সাথে আমার কিছু লেনদেন চলমান আছে।

Please Share This Post in Your Social Media

টঙ্গীতে বিনিয়োগকৃত অর্থ আদায়ের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

Update Time : ০৮:৫৮:৪৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ৪ মে ২০২৪

সমর্পণ প্রপার্টিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোবারক করিমের বিচার ও অর্থ আদায়ের দাবীতে টঙ্গীতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৪ মে) টঙ্গী সিটি প্রেসক্লাবের হলরুমে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন ভুক্তভোগী বিনিয়োগকারী গিয়াস উদ্দিন ও ওয়ালিউল হাসানতসহ তার পরিবার।

সংবাদ সম্মেলনে ওয়ালিউল হাসানত লিখিত বক্তব্যে বলেন, সমর্পণ প্রপার্টিজ লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোবারক জমি ও ফ্ল্যাট ক্রয়-বিক্রয় ব্যবসার বিনিয়োগে মুনাফার কথা বলে প্রতারণা করে আসছে। বিনিয়োগকৃত অর্থ ও ন্যয্য লভ্যাংশ ফেরত না দিয়ে চেক জালিয়াতি, প্রতারনা ও অর্থ আত্মসাতের উদ্দেশ্যে হুমকি দিয়ে আসছে।

২০১৯ সালে মোবারক পাওনাদারদের কোটি কোটি টাকা না দিয়ে গোপনে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া পালিয়ে যায় এবং সেখানে গিয়ে সহযোগীদের দ্বারা গোপনে ব্যবসা পরিচালনা করে। এরপর বাংলাদেশে এসে সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা পুনরায় ব্যবসা শুরু করেন তিনি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, গত ২৬শে এপ্রিল ২০২৪ বিকেল ৫টায় মোবারক বিনিয়োগকারী গিয়াস উদ্দিনের ৮২ লাখ ৫৩ হাজার টাকা পাওনার বিষয়ে আলোচনায় বসার কথা থাকলেও কৌশলে পালিয়ে যায় এবং গিয়াস উদ্দিনের বাসায় ওই দিন রাতে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হামলা চালাতে গিয়ে ব্যর্থ হয়। মোবারক ব্ল্যাকমেইলের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন বানোয়াট, ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বিনিয়োগকারীদের মানহানী করার উদ্দেশ্যে একটি মানববন্ধন করেন। অপপ্রচার চালানোর অভিযোগে ২৯ এপ্রিল বিনিযোগকারী গিয়াস উদ্দিন টঙ্গী পূর্ব থানায় মোবারকের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। মোবারক যেন দেশ ছেড়ে পালাতে না পারেন সেজন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন ভুক্তভোগী বিনিয়োগকারীরা।

এ বিষয়ে সমর্পণ প্রপার্টিজ লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক অভিযুক্ত মোবারক করিম বলেন, ব্যবসায়ীক লোকসানের কারনে আমি প্রায় দেউলিয়া হয়ে গেছি। তবুও পাওনাদারদের টাকা পরিশোধ করতে আমি দেশে এসেছি। তাদের সাথে আমার কিছু লেনদেন চলমান আছে।