ঢাকা ০৬:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
বিদ্যালয়ের জরুরী সভায় সাময়িক বরখাস্ত

ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

কামুরুল হাসান টিটু,রংপুর ব‌্যু‌রো
  • Update Time : ০৮:০১:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ জুন ২০২৩
  • / ১২৪ Time View

বদরগঞ্জ উপজেলার চম্পাতলী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক।

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার চম্পাতলী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার(১৫জুন) রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির এক জরুরী সভায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মামলায় বলা হয়েছে- প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক বেশ কিছুদিন ধরে ওই ছাত্রীকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে তার অফিসকক্ষে ডেকে নিয়ে যৌন পীড়ন চালাতেন। বিষয়টি যাতে প্রকাশ না পায় সেজন্য ওই ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করানোর পাশাপাশি নানাভাবে হুমকি দেয়া হয়। ফলে ওই ছাত্রী ভয়ে কাউকে কিছু বলতে পারেনি। তবে ১০ জুন দুপুরে প্রধান শিক্ষক ফোন করে আপত্তিকর কথাবার্তা বললে তা’ রেকর্ড করে ওই ছাত্রী।

বিষয়টি নিয়ে সে তার খালার সাথে কথা বলে। তার খালা বিষয়টি মোকাবেলায় এলাকার লোকজনের শরনাপন্ন হন। ফলে এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার(১৫জুন) সকালে বিক্ষুব্ধ লোকজন বিদ্যালয়ে তালা ঝোলানোর পাশাপাশি প্রধান শিক্ষকের শাস্তি দাবী করেন। উপজেলা ও থানা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ লোকজনকে শান্ত করতে ব্যর্থ হন। কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সাথে সাথেই এলাকার লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে বিদ্যালয় পাহারায় বসেন- যাতে করে সেখানে প্রধান শিক্ষক প্রবেশ করতে না পারেন।

রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বদরগঞ্জ থানায় প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে মামলা করলে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে দামোদরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম ঝাড় পাড়াস্থ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসি হাবিবুর রহমান।

এদিকে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মমতাজ হোসেন বলেছেন, ম্যানেজিং কমিটির জরুরী সভায় ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠণের পাশাপাশি আব্দুর রাজ্জাককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এছাড়া সহকারী প্রধান শিক্ষককে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, তদন্ত কমিটিকে ১৫ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

বিদ্যালয়ের জরুরী সভায় সাময়িক বরখাস্ত

ছাত্রীকে যৌন নিপীড়ন, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

Update Time : ০৮:০১:২৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ জুন ২০২৩

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার চম্পাতলী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বৃহস্পতিবার(১৫জুন) রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির এক জরুরী সভায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

মামলায় বলা হয়েছে- প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাক বেশ কিছুদিন ধরে ওই ছাত্রীকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে তার অফিসকক্ষে ডেকে নিয়ে যৌন পীড়ন চালাতেন। বিষয়টি যাতে প্রকাশ না পায় সেজন্য ওই ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করানোর পাশাপাশি নানাভাবে হুমকি দেয়া হয়। ফলে ওই ছাত্রী ভয়ে কাউকে কিছু বলতে পারেনি। তবে ১০ জুন দুপুরে প্রধান শিক্ষক ফোন করে আপত্তিকর কথাবার্তা বললে তা’ রেকর্ড করে ওই ছাত্রী।

বিষয়টি নিয়ে সে তার খালার সাথে কথা বলে। তার খালা বিষয়টি মোকাবেলায় এলাকার লোকজনের শরনাপন্ন হন। ফলে এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। বৃহস্পতিবার(১৫জুন) সকালে বিক্ষুব্ধ লোকজন বিদ্যালয়ে তালা ঝোলানোর পাশাপাশি প্রধান শিক্ষকের শাস্তি দাবী করেন। উপজেলা ও থানা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ লোকজনকে শান্ত করতে ব্যর্থ হন। কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সাথে সাথেই এলাকার লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে বিদ্যালয় পাহারায় বসেন- যাতে করে সেখানে প্রধান শিক্ষক প্রবেশ করতে না পারেন।

রাতে ওই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে বদরগঞ্জ থানায় প্রধান শিক্ষক আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে মামলা করলে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে দামোদরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম ঝাড় পাড়াস্থ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওসি হাবিবুর রহমান।

এদিকে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মমতাজ হোসেন বলেছেন, ম্যানেজিং কমিটির জরুরী সভায় ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠণের পাশাপাশি আব্দুর রাজ্জাককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এছাড়া সহকারী প্রধান শিক্ষককে প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, তদন্ত কমিটিকে ১৫ কার্য দিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।