ঢাকা ০৫:৪৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজের ১৫ দিনেও সন্ধান মেলেনি দুই বান্ধবীর

আঃ খালেক মন্ডল,গাইবান্ধা
  • Update Time : ১১:৫৭:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ জুন ২০২৩
  • / ১০২ Time View

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজ দুই বান্ধবী মোছাঃ হিমা খাতুন (১৭) ও মোছাঃ লিয়া খাতুন (১৮) এর সন্ধান মেলেনি ১৫ দিনেও। পরিবার থেকে পৃর্থক ভাবে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে।

জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কোচাহর ইউনিয়নের সিংগা গ্রামের মোঃ আব্দুল হামিদ মিয়ার কন্যা মোছাঃ হিমা খাতুন ও একই ইউনিয়নের দক্ষিণ ছয়ঘড়িয়া (পাছপাড়া) গ্রামের মোঃ বাবু মিয়ার কন্যা মোছাঃ লিয়া খাতুন, ছয়ঘড়িয়া দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো।

মোছা হিমা খাতুন ও মোছাঃ লিয়া খাতুনের সহপাঠী মোছাঃ মিরজানা খাতুন জানান, গত ৩১ মে তাদের ছিলো শেষ পরীক্ষা। মহিমাগঞ্জ কেন্দ্র থেকে পরীক্ষা শেষে কয়েজ জন বান্ধবী একই সাথে অটোভ্যান যোগে বাড়ীর উদ্দেশ্যে কোচাশহর বাজারে এসে নামে। সেখানে তারা এক সাথে রমজানের স্টলে নাস্তা করে। নাস্তা শেষে তারা বাড়ীতে আসার জন্য বের হলে হিমা ও লিয়া খাতুন তাদের বলে, তোরা যা আমাদের যেতে দেরি হবে। তখন ওদের ছেড়ে অন্যরা সবাই অটোভ্যান ধরে নিজ নিজ বাড়ীর উদ্দেশ্যে চলে যায়।

এদিকে বেলা শেষে সন্ধ্যা গড়িয়ে এলে তারা বাড়ীতে না পৌঁছায় অভিভাবকেরা চিন্তায় পড়ে যায়। তখন সহপাঠীদের বাড়ীতে খোঁজ নিতে শুরু করে তারা। খোঁজ নিয়ে জানতে পারে সবাই বাড়ীতে আছে, নেই শুধু তারা দুই বান্ধবী মোছাঃ হিমা ও মোছা লিয়া খাতুন। শুরু হয় আত্নীয়, স্বজনসহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি। কোথাও তাদের সন্ধান না পেয়ে মোছাঃ হিমা খাতুন ও মোছাঃ লিয়া খাতুনের পরিবার থেকে গত ২ জুন থানায় পৃর্থক ভাবে দু’টি সাধারণ ডায়েরী করেছে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইজার উদ্দিন নিখোঁজের ডায়েরী দু’টি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেন এসআই দীপক কুমারের উপর।

এ বিষয়ে থানার এসআই দীপক কুমার এর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, তারা দুই বান্ধবী পরীক্ষা শেষে একই সাথে বের হয়েছে। তবে তাদের উদ্ধারে তদন্ত অব্যাহত আছে।

Please Share This Post in Your Social Media

গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজের ১৫ দিনেও সন্ধান মেলেনি দুই বান্ধবীর

Update Time : ১১:৫৭:৩১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৪ জুন ২০২৩

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে নিখোঁজ দুই বান্ধবী মোছাঃ হিমা খাতুন (১৭) ও মোছাঃ লিয়া খাতুন (১৮) এর সন্ধান মেলেনি ১৫ দিনেও। পরিবার থেকে পৃর্থক ভাবে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছে।

জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কোচাহর ইউনিয়নের সিংগা গ্রামের মোঃ আব্দুল হামিদ মিয়ার কন্যা মোছাঃ হিমা খাতুন ও একই ইউনিয়নের দক্ষিণ ছয়ঘড়িয়া (পাছপাড়া) গ্রামের মোঃ বাবু মিয়ার কন্যা মোছাঃ লিয়া খাতুন, ছয়ঘড়িয়া দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো।

মোছা হিমা খাতুন ও মোছাঃ লিয়া খাতুনের সহপাঠী মোছাঃ মিরজানা খাতুন জানান, গত ৩১ মে তাদের ছিলো শেষ পরীক্ষা। মহিমাগঞ্জ কেন্দ্র থেকে পরীক্ষা শেষে কয়েজ জন বান্ধবী একই সাথে অটোভ্যান যোগে বাড়ীর উদ্দেশ্যে কোচাশহর বাজারে এসে নামে। সেখানে তারা এক সাথে রমজানের স্টলে নাস্তা করে। নাস্তা শেষে তারা বাড়ীতে আসার জন্য বের হলে হিমা ও লিয়া খাতুন তাদের বলে, তোরা যা আমাদের যেতে দেরি হবে। তখন ওদের ছেড়ে অন্যরা সবাই অটোভ্যান ধরে নিজ নিজ বাড়ীর উদ্দেশ্যে চলে যায়।

এদিকে বেলা শেষে সন্ধ্যা গড়িয়ে এলে তারা বাড়ীতে না পৌঁছায় অভিভাবকেরা চিন্তায় পড়ে যায়। তখন সহপাঠীদের বাড়ীতে খোঁজ নিতে শুরু করে তারা। খোঁজ নিয়ে জানতে পারে সবাই বাড়ীতে আছে, নেই শুধু তারা দুই বান্ধবী মোছাঃ হিমা ও মোছা লিয়া খাতুন। শুরু হয় আত্নীয়, স্বজনসহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজি। কোথাও তাদের সন্ধান না পেয়ে মোছাঃ হিমা খাতুন ও মোছাঃ লিয়া খাতুনের পরিবার থেকে গত ২ জুন থানায় পৃর্থক ভাবে দু’টি সাধারণ ডায়েরী করেছে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইজার উদ্দিন নিখোঁজের ডায়েরী দু’টি আমলে নিয়ে তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেন এসআই দীপক কুমারের উপর।

এ বিষয়ে থানার এসআই দীপক কুমার এর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান, তারা দুই বান্ধবী পরীক্ষা শেষে একই সাথে বের হয়েছে। তবে তাদের উদ্ধারে তদন্ত অব্যাহত আছে।