ঢাকা ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় মহিলা ফোরামের মানববন্ধন স্মারকলিপি প্রদান

আঃ খালেক মন্ডল, গাইবান্ধা
  • Update Time : ০৭:২১:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ মে ২০২৩
  • / ১৪৮ Time View

নারী গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য রাষ্ট্রীয়ভাবে নিরূপন করে স্বীকৃতি ও মর্যাদা দান, নারীর স্বাস্থ্য, শিক্ষা কর্মসংস্থান, নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে আগামী বাজেটে বরাদ্দ বৃদ্ধিসহ তিন দফা দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে গানাসাস মার্কেটের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন বাসদ জেলা জেলা আহবায়ক গোলাম রব্বানী, মহিলা ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা আহবায়ক ইসরাত জাহান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আফরোজা বেগম, জেলা কমিটির সদস্য প্রতিমা রাণী, হাবিবা বেগম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিজয়া মোদক।

বক্তারা বলেন, গৃহস্থালি কাজ ছাড়া কোন পরিবার ও সমাজ কল্পনা করা যায় না। বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সিসিডির গবেষণা অনুযায়ী ২০১৪ সালে বাংলাদেশের নারীদের গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য বছরে ১১ লাখ কোটি টাকার উপরে। কিন্তু দীর্ঘদিন দাবি জানানোর পরেও নারীর গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য হিসাব করার জন্য রাষ্ট্রীয় কোন উদ্যোগ পরিলক্ষিত হয়নি।

নারীদের গৃহস্থালি কাজের অবদানের মূল্যায়ন না হওয়ায় সমাজে, পরিবারে, নারীরা তার প্রাপ্য সম্মান থেকে বঞ্চিত হন এবং অসহায় বোধ করেন। নির্যাতন বৈষম্যের শিকার হন, আমরা মনে করি নারীর শ্রমের প্রতি সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি ও নারীদের সামাজিক অবস্থা পরিক্ষণে রাখা বড় ভুমিকা পালন করতে পারে। আগামী বাজেটে একটি বরাদ্দ রাখতে পারে। স্বামীর সংসারে নির্যাতিত নারী, স্বামী নিগৃহিতা দু:স্থ ও বিধবা নারীদেরকে রাষ্ট্রীয়ভাবে পুনর্বাসনের জন্য এই তহবিল বরাদ্দ হবে। শেষে মহিলা ফোরামের নেতৃবৃন্দরা গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অর্থমন্ত্রী বরাবর দাবি সম্বলিত একটি স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন।

Please Share This Post in Your Social Media

গাইবান্ধায় মহিলা ফোরামের মানববন্ধন স্মারকলিপি প্রদান

Update Time : ০৭:২১:৫৭ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৯ মে ২০২৩

নারী গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য রাষ্ট্রীয়ভাবে নিরূপন করে স্বীকৃতি ও মর্যাদা দান, নারীর স্বাস্থ্য, শিক্ষা কর্মসংস্থান, নিরাপত্তা নিশ্চিত করাসহ নারীর উন্নয়ন ও ক্ষমতায়নে আগামী বাজেটে বরাদ্দ বৃদ্ধিসহ তিন দফা দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সোমবার সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম গাইবান্ধা জেলা শাখার উদ্যোগে গানাসাস মার্কেটের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মানববন্ধন কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন বাসদ জেলা জেলা আহবায়ক গোলাম রব্বানী, মহিলা ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও জেলা আহবায়ক ইসরাত জাহান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আফরোজা বেগম, জেলা কমিটির সদস্য প্রতিমা রাণী, হাবিবা বেগম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিজয়া মোদক।

বক্তারা বলেন, গৃহস্থালি কাজ ছাড়া কোন পরিবার ও সমাজ কল্পনা করা যায় না। বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সিসিডির গবেষণা অনুযায়ী ২০১৪ সালে বাংলাদেশের নারীদের গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য বছরে ১১ লাখ কোটি টাকার উপরে। কিন্তু দীর্ঘদিন দাবি জানানোর পরেও নারীর গৃহস্থালি কাজের আর্থিক মূল্য হিসাব করার জন্য রাষ্ট্রীয় কোন উদ্যোগ পরিলক্ষিত হয়নি।

নারীদের গৃহস্থালি কাজের অবদানের মূল্যায়ন না হওয়ায় সমাজে, পরিবারে, নারীরা তার প্রাপ্য সম্মান থেকে বঞ্চিত হন এবং অসহায় বোধ করেন। নির্যাতন বৈষম্যের শিকার হন, আমরা মনে করি নারীর শ্রমের প্রতি সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি ও নারীদের সামাজিক অবস্থা পরিক্ষণে রাখা বড় ভুমিকা পালন করতে পারে। আগামী বাজেটে একটি বরাদ্দ রাখতে পারে। স্বামীর সংসারে নির্যাতিত নারী, স্বামী নিগৃহিতা দু:স্থ ও বিধবা নারীদেরকে রাষ্ট্রীয়ভাবে পুনর্বাসনের জন্য এই তহবিল বরাদ্দ হবে। শেষে মহিলা ফোরামের নেতৃবৃন্দরা গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে অর্থমন্ত্রী বরাবর দাবি সম্বলিত একটি স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন।