ঢাকা ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মানববন্ধন সমাবেশ ও স্বারক লিপি প্রদান

আঃ খালেক মন্ডল,গাইবান্ধা 
  • Update Time : ০৭:১৩:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ জুন ২০২৩
  • / ১৯৩ Time View

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের আওতায় শিক্ষক-শিক্ষিকা কেয়ার টেকার ও সকল জনবল সহ রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবিতে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে বুধবার (৭ জুন) দুুপুরে এক মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক মো. অলিউর রহমানের কাছে বিভিন্ন দাবি সম্মলিত একটি স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। এসময় জেলা ও উপজেলা মউশিক শিক্ষক কল্যাণ পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন এ সময় মউশিক শিক্ষক কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো.আশরাফুল ইসলাম প্রধান সাধারন সম্পাদক মো. মোশারফ হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, আব্দুস সামাদ, আফতাব উদ্দিন, হাবিবুর রহমান, আব্দুল হাই খন্দকার, সুলতান মাহমুদ, রুহুল আমিন, আলামিন, মো.মোজাহিদ মিয়া, জহুরুল ইসলাম, মুসফিকুর রহমান, নুরুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, রেজাউল করিম সেলিম, সৈয়দ ওয়াজেদ, মাহামুদুল ইসলাম, ইমদাদুল হক প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, এই শিক্ষক করোনাকালীন সময়ে করোনা আক্রান্ত মৃত্যু ব্যাক্তিদের জানাজা ও দাফন কাফনের সহযোগিতা করেছে। বর্তমানে প্রকল্পটির মাধ্যমে প্রাক- প্রাথমিক সহজ কোরান শিক্ষা ও বয়স্ক শিক্ষা সহ সারাদেশে মোট ৭৩ হাজার ৭৮৬টি শিক্ষা কেন্দ্র শিক্ষক/শিক্ষিকাদের মাধ্যমে প্রতিবছর ২৪ লাখ ১৪ হাজার জন শিক্ষার্থী শিক্ষাগ্রহন করে আসছে। উক্ত প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের সমাজের অবহেলিত, দারিদ্র ও নিরক্ষর জনগোষ্ঠী এবং কর্মরত মসজিদের ইমাম, শিক্ষক শিক্ষকদের মানবিকদিক বিবেচনা করে সুখী ও সমৃদ্ধশালী বাংরাদেশে বিনির্মানে লক্ষ্যে স্বাধীনতার মহান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত জননন্দিত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বৃহৎ এ প্রকল্পটি জাতীয় রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করার জন্য আমরা দাবি জানাচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

গাইবান্ধায় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মানববন্ধন সমাবেশ ও স্বারক লিপি প্রদান

Update Time : ০৭:১৩:৩৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ জুন ২০২৩

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের আওতায় শিক্ষক-শিক্ষিকা কেয়ার টেকার ও সকল জনবল সহ রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের দাবিতে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে বুধবার (৭ জুন) দুুপুরে এক মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক মো. অলিউর রহমানের কাছে বিভিন্ন দাবি সম্মলিত একটি স্মারক লিপি প্রদান করা হয়। এসময় জেলা ও উপজেলা মউশিক শিক্ষক কল্যাণ পরিষদের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন এ সময় মউশিক শিক্ষক কল্যাণ পরিষদের সভাপতি মো.আশরাফুল ইসলাম প্রধান সাধারন সম্পাদক মো. মোশারফ হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, আব্দুস সামাদ, আফতাব উদ্দিন, হাবিবুর রহমান, আব্দুল হাই খন্দকার, সুলতান মাহমুদ, রুহুল আমিন, আলামিন, মো.মোজাহিদ মিয়া, জহুরুল ইসলাম, মুসফিকুর রহমান, নুরুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, রেজাউল করিম সেলিম, সৈয়দ ওয়াজেদ, মাহামুদুল ইসলাম, ইমদাদুল হক প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, এই শিক্ষক করোনাকালীন সময়ে করোনা আক্রান্ত মৃত্যু ব্যাক্তিদের জানাজা ও দাফন কাফনের সহযোগিতা করেছে। বর্তমানে প্রকল্পটির মাধ্যমে প্রাক- প্রাথমিক সহজ কোরান শিক্ষা ও বয়স্ক শিক্ষা সহ সারাদেশে মোট ৭৩ হাজার ৭৮৬টি শিক্ষা কেন্দ্র শিক্ষক/শিক্ষিকাদের মাধ্যমে প্রতিবছর ২৪ লাখ ১৪ হাজার জন শিক্ষার্থী শিক্ষাগ্রহন করে আসছে। উক্ত প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের সমাজের অবহেলিত, দারিদ্র ও নিরক্ষর জনগোষ্ঠী এবং কর্মরত মসজিদের ইমাম, শিক্ষক শিক্ষকদের মানবিকদিক বিবেচনা করে সুখী ও সমৃদ্ধশালী বাংরাদেশে বিনির্মানে লক্ষ্যে স্বাধীনতার মহান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত জননন্দিত ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বৃহৎ এ প্রকল্পটি জাতীয় রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করার জন্য আমরা দাবি জানাচ্ছি।