ঢাকা ০৯:৫০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

কাউনিয়ায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে দুইজনের মৃত্যু

কামরুল হাসান টিটু, রংপুর ব্যুরো
  • Update Time : ০৪:৪৬:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ মে ২০২৩
  • / ৭৮ Time View

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (২১ মে) উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের বাহাগালি গ্রামে এবং হারাগাছ ইউনিয়নের পল্লীমারী একতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহত রাবেয়া খাতুন (৬৫) পল্লীমারী একতা গ্রামের মৃত আনেছ আলীর স্ত্রী এবং নিহত নূর হাসান (৫) হারাগাছ ইউনিয়নের নাজিরদহ গ্রামের আলমগীরের ছেলে।  

 

স্থানীয়রা জানায়, পল্লীমারী একতা গ্রামে বৃদ্ধ রাবেয়া খাতুনের চার মেয়ে। মেয়েরা স্বামীর বাড়িতে বসবাস করেন। বৃদ্ধ রাবেয়া খাতুন পুলিশের দেওয়া বাড়িতে একাই বসবাস করেন। প্রায় তিনি পাতলা পায়খানার কারণে অসুস্থ হতেন। শনিবার অসুস্থ শরীরে রাতের কোন এক সময় বাড়ির পাশে পুকুরে কাপড় পরিস্কার করতে যায়। গভীরতা বেশি হওয়ায় তিনি পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। রোববার সকালে স্থানীয় লোকজন পুকুরে লাশ ভাসতে দেখতে পান। পরে স্বজনরা রাবেয়া খাতুনের মৃত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

 

অপরদিকে একই দিন বিকেলে বাহাগালি গ্রামে নানা নুর মোহাম্মদের বাড়িতে মায়ের কাছে আসে শিশু নূর হাসান। রোববার সকাল ১০ টার দিকে নূর হাসান পরিবারের অজান্তে বাড়ির পাশে পানি ভর্তি গর্তে পড়ে গিয়ে ডুবে যায়। একপর্যায়ে পরিবারের লোকজন গর্তে শিশুটির মরদেহ ভাসতে দেখেন। পরে মৃত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

 

কাউনিয়া থানা পুরিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, গর্তে ও পুুকুরের পানিতে ডুবে এক শিশুসহ দুইজনের মৃত্যুর বিষয়টি জানার পর নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। নিহত দুই পরিবারের অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। 

Please Share This Post in Your Social Media

কাউনিয়ায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে দুইজনের মৃত্যু

Update Time : ০৪:৪৬:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ মে ২০২৩

রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (২১ মে) উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের বাহাগালি গ্রামে এবং হারাগাছ ইউনিয়নের পল্লীমারী একতা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

নিহত রাবেয়া খাতুন (৬৫) পল্লীমারী একতা গ্রামের মৃত আনেছ আলীর স্ত্রী এবং নিহত নূর হাসান (৫) হারাগাছ ইউনিয়নের নাজিরদহ গ্রামের আলমগীরের ছেলে।  

 

স্থানীয়রা জানায়, পল্লীমারী একতা গ্রামে বৃদ্ধ রাবেয়া খাতুনের চার মেয়ে। মেয়েরা স্বামীর বাড়িতে বসবাস করেন। বৃদ্ধ রাবেয়া খাতুন পুলিশের দেওয়া বাড়িতে একাই বসবাস করেন। প্রায় তিনি পাতলা পায়খানার কারণে অসুস্থ হতেন। শনিবার অসুস্থ শরীরে রাতের কোন এক সময় বাড়ির পাশে পুকুরে কাপড় পরিস্কার করতে যায়। গভীরতা বেশি হওয়ায় তিনি পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। রোববার সকালে স্থানীয় লোকজন পুকুরে লাশ ভাসতে দেখতে পান। পরে স্বজনরা রাবেয়া খাতুনের মৃত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

 

অপরদিকে একই দিন বিকেলে বাহাগালি গ্রামে নানা নুর মোহাম্মদের বাড়িতে মায়ের কাছে আসে শিশু নূর হাসান। রোববার সকাল ১০ টার দিকে নূর হাসান পরিবারের অজান্তে বাড়ির পাশে পানি ভর্তি গর্তে পড়ে গিয়ে ডুবে যায়। একপর্যায়ে পরিবারের লোকজন গর্তে শিশুটির মরদেহ ভাসতে দেখেন। পরে মৃত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।

 

কাউনিয়া থানা পুরিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, গর্তে ও পুুকুরের পানিতে ডুবে এক শিশুসহ দুইজনের মৃত্যুর বিষয়টি জানার পর নিজেই ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। নিহত দুই পরিবারের অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।