ঢাকা ০৬:১৩ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ
বিমানবন্দর-টঙ্গী থেকে ধারালো অস্ত্রসহ ৮ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার কিশোরগঞ্জে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলের উন্নয়ন খাতের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ সাংবাদিককে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা ও গ্র্যাজুয়েট হতে হবে বেনজীরের আরও ১১৩ দলিলের সম্পদ ও গুলশানের ৪টি ফ্ল্যাট জব্দের আদেশ সুজানগরে গৃহবধূকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে কাউকে ছাড় দেব না : ইসি রাশেদা ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে একটি বাড়ি থেকে ১২ কোটি রুপির স্বর্ণ জব্দ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে বৈধপথে রেমিট্যান্স প্রেরণের আহ্বান প্রবাসী কল্যাণ প্রতিমন্ত্রীর ঝালকাঠিতে রেমালের প্রভাবে নদীর পানি বেড়েছে ২১৭ নেতাকে বহিষ্কার করল বিএনপি

কবি সেলিনা শেলীকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত প্রত‍্যাহারের দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সমাবেশ

Reporter Name
  • Update Time : ০৫:৩৫:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩
  • / ২২৯ Time View

ফেসবুকে দেয়া পোস্টকে কেন্দ্র করে কবি, শিক্ষক ও সাংস্কৃতিক সংগঠক সেলিনা আক্তার শেলীকে হয়রানির প্রতিবাদে মাননবন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশ থেকে সেলিনা শেলীকে অবিলম্বে চট্টগ্রাম বন্দর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদে পুনর্বহাল এবং তাকে হয়রানি বন্ধের জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয়েছে। একইসঙ্গে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করে মানুষের বাকস্বাধীনতা ফিরিয়ে দেয়ারও দাবি জানানো হয়েছে।

আজ, ১৯ এপ্রিল বিকাল ৪টায়, নগরীর নিউ মার্কেট মোড়ে ৩দফা দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখার আয়োজনে ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখার সভাপতি মিরাজ উদ্দিন, উপস্থিত ছিলেন চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আহমদ জসিম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি রায়হান উদ্দিন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ঋজু লক্ষ্মী অবরোধ, নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রীতম বড়ুয়া, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক উম্মে হাবিবা শ্রাবণী।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ফেসবুকের পোস্টে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগার অজুহাতে অধ‍্যক্ষ সেলিনা আক্তার শেলীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষের স্বৈরাচারী ও অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের বহিঃপ্রকাশ। ডিজিটাল সিকিউরিটি এ্যক্ট এর ভয় দেখিয়ে মত প্রকাশের স্বাধীনতা স্তব্ধ করা হচ্ছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়নের সময় থেকেই আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানিয়ে এই কালো আইন বাতিলের কথা বলা হয়ে আসছে। আইনটির বিতর্কিত ব্যবহার বারংবার আমাদের আশঙ্কাকে ঠিক প্রমাণ করে জনমতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করেছে। এই ধরণের কালো আইন প্রণয়ন ও তার ব্যবহার সরকারের স্বৈরাচারী আচরণ জনগণের সামনে নগ্নরূপে তুলে আনছে।

অবিলম্বে সেলিনা আক্তার শেলীর বরখাস্তের সিদ্ধান্ত বাতিল করে স্বপদে বহাল রাখার এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও বাক স্বাধীনতা নিশ্চিত করার দাবি জানান নেতৃবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

কবি সেলিনা শেলীকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত প্রত‍্যাহারের দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সমাবেশ

Update Time : ০৫:৩৫:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩

ফেসবুকে দেয়া পোস্টকে কেন্দ্র করে কবি, শিক্ষক ও সাংস্কৃতিক সংগঠক সেলিনা আক্তার শেলীকে হয়রানির প্রতিবাদে মাননবন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সমাবেশ থেকে সেলিনা শেলীকে অবিলম্বে চট্টগ্রাম বন্দর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদে পুনর্বহাল এবং তাকে হয়রানি বন্ধের জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানানো হয়েছে। একইসঙ্গে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করে মানুষের বাকস্বাধীনতা ফিরিয়ে দেয়ারও দাবি জানানো হয়েছে।

আজ, ১৯ এপ্রিল বিকাল ৪টায়, নগরীর নিউ মার্কেট মোড়ে ৩দফা দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখার আয়োজনে ছাত্র সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট চট্টগ্রাম নগর শাখার সভাপতি মিরাজ উদ্দিন, উপস্থিত ছিলেন চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আহমদ জসিম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি রায়হান উদ্দিন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক ঋজু লক্ষ্মী অবরোধ, নগর শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রীতম বড়ুয়া, স্কুল বিষয়ক সম্পাদক উম্মে হাবিবা শ্রাবণী।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ফেসবুকের পোস্টে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লাগার অজুহাতে অধ‍্যক্ষ সেলিনা আক্তার শেলীকে বরখাস্ত করার সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষের স্বৈরাচারী ও অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের বহিঃপ্রকাশ। ডিজিটাল সিকিউরিটি এ্যক্ট এর ভয় দেখিয়ে মত প্রকাশের স্বাধীনতা স্তব্ধ করা হচ্ছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়নের সময় থেকেই আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানিয়ে এই কালো আইন বাতিলের কথা বলা হয়ে আসছে। আইনটির বিতর্কিত ব্যবহার বারংবার আমাদের আশঙ্কাকে ঠিক প্রমাণ করে জনমতের বিরুদ্ধে ব্যবহার করেছে। এই ধরণের কালো আইন প্রণয়ন ও তার ব্যবহার সরকারের স্বৈরাচারী আচরণ জনগণের সামনে নগ্নরূপে তুলে আনছে।

অবিলম্বে সেলিনা আক্তার শেলীর বরখাস্তের সিদ্ধান্ত বাতিল করে স্বপদে বহাল রাখার এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল ও বাক স্বাধীনতা নিশ্চিত করার দাবি জানান নেতৃবৃন্দ।