ঢাকা ০৪:৫৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলাউদ্দিন আলাল এর বিরুদ্ধে আনীত মামলা প্রত্যাহারের জন্য স্ত্রীর মানববন্ধন

মোঃ রফিকুল ইসলাম মিঠু, (উত্তরা) ঢাকা
  • Update Time : ০১:৪২:৪৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩
  • / ১১৩ Time View

শুক্রবার ২৬ শে মে রাজধানীর  তুরাগ থানাধীন ধউর এলাকার আলাউদ্দিন আলালের স্ত্রী শাহিনুর বেগম তার স্বামীর বিরুদ্ধে আনীত মামলা প্রত্যাহার সহ মুক্তির দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনের আয়োজন করেন।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা জাতির বিবেক। আপনাদের মাধ্যমে আমি ন্যায় বিচার আশা করছি।

ঘটনার বিবরণে তিনি বলেন গত ১৮ই মে ২০২৩ ইং রাত আনুমানিক ১১ টায় আমি আমার স্বামীকে ডাক্তারের কাছ থেকে নিয়ে আসার পর হঠাৎ করে তুরাগ থানার এসআই অনুজ কুমার সরকার ৮-১০ জন পুলিশ নিয়ে আমার বাসায় হাজির হয়ে আমার স্বামীকে তার সাথে থানায় যেতে বলেন। তখন আমার ছেলে হিমেল তাদের কাছে জানতে চায় তার বাবার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ বা মামলা আছে কিনা। তখন এস আই অনুজ কুমার সরকার আমার ছেলেকে বলেন একই মামলায় তোমারও নাম আছে তোমাকে রেখে তোমার বাবাকে নিয়ে গেলাম।

শাহিনুর বেগম আরো দাবি করেন তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে পুলিশ খারাপ আচরণ করেন। অন্যদিকে এস আই অনুজ কুমার খারাপ আচরণের কথা অস্বীকার করে বলেন আলালের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল বিধায় তাকে থানায় নিয়ে আশী।পরবর্তীতে আইনআনুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

আলালের স্ত্রী আরো দাবি করেন তার শশুরের থেকে প্রাপ্ত সম্পত্তি নিয়ে তার ভাসুরের সাথে দীর্ঘদিন বাটোয়ারা মামলা চলে আসছিল। এই মামলায় আদালত কর্তৃক তাদের পক্ষে রায় দেওয়া হয় এবং স্বরেজমিনে আদালত তাদের সম্পত্তি বুঝিয়ে দিয়ে যায়।

তিনি আরো দাবি করেন বাদী আব্দুর রব ইতিপূর্বে বিভিন্ন সময় তার স্বামীর সাথে বন্ধুসুলব আচরণ করতেন হঠাৎ করে তিনি কাদের পরোচনায় পড়ে আমার স্বামীর বিরুদ্ধে  অভিযোগ করেছেন তা আমার বোধগম্য নয়। আমার স্বামী অসুস্থ তার কোমরের জয়েন্টে লোহার রড ঢুকানো আছে তিনি হাই কমেট ছাড়া সৌচাগার ব্যবহার করতে পারেন না। এমন অবস্থায় আজ নয় দিন যাব তিনি কিভাবে জেল হাজতে সময় পার করছেন তা আমার জানা নেই। আপনাদের মাধ্যমে আমি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমার স্বামীকে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে মুক্তি দিতে আদালতের মর্জি কামনা করছি।

বিষয়টি জানার জন্য বাদী আব্দুর রব কে একাধিক বার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

মামলার বিষয়টি নিয়ে উক্ত প্রতিবেদকের সাথে টেলিফোনে কথা হয় তুরাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মওদুদ হাওলাদারের সাথে। তিনি বলেন মামলার বিষয়বস্তু সঠিক না হলে অনুসন্ধানে যদি মিথ্যা পাওয়া যায় তাহলে আমরা আদালতে মামলাটি মিথ্যা বলিয়া রিপোর্ট দাখিল করিবো। আর সত্যতা পাওয়া গেলে চার্জশিট প্রদান করিব।

তিনি আরো বলেন আলাউদ্দিন আলালের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও তুরাগ থানায় তেরোটির মত মামলা রয়েছে।

ওসি বলেন পুলিশের  কোনরকম কোন অসধ আচরণের সঠিক তথ্য পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tag :

Please Share This Post in Your Social Media

আলাউদ্দিন আলাল এর বিরুদ্ধে আনীত মামলা প্রত্যাহারের জন্য স্ত্রীর মানববন্ধন

Update Time : ০১:৪২:৪৫ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৬ মে ২০২৩

শুক্রবার ২৬ শে মে রাজধানীর  তুরাগ থানাধীন ধউর এলাকার আলাউদ্দিন আলালের স্ত্রী শাহিনুর বেগম তার স্বামীর বিরুদ্ধে আনীত মামলা প্রত্যাহার সহ মুক্তির দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনের আয়োজন করেন।

উক্ত সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা জাতির বিবেক। আপনাদের মাধ্যমে আমি ন্যায় বিচার আশা করছি।

ঘটনার বিবরণে তিনি বলেন গত ১৮ই মে ২০২৩ ইং রাত আনুমানিক ১১ টায় আমি আমার স্বামীকে ডাক্তারের কাছ থেকে নিয়ে আসার পর হঠাৎ করে তুরাগ থানার এসআই অনুজ কুমার সরকার ৮-১০ জন পুলিশ নিয়ে আমার বাসায় হাজির হয়ে আমার স্বামীকে তার সাথে থানায় যেতে বলেন। তখন আমার ছেলে হিমেল তাদের কাছে জানতে চায় তার বাবার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ বা মামলা আছে কিনা। তখন এস আই অনুজ কুমার সরকার আমার ছেলেকে বলেন একই মামলায় তোমারও নাম আছে তোমাকে রেখে তোমার বাবাকে নিয়ে গেলাম।

শাহিনুর বেগম আরো দাবি করেন তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সাথে পুলিশ খারাপ আচরণ করেন। অন্যদিকে এস আই অনুজ কুমার খারাপ আচরণের কথা অস্বীকার করে বলেন আলালের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল বিধায় তাকে থানায় নিয়ে আশী।পরবর্তীতে আইনআনুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়।

আলালের স্ত্রী আরো দাবি করেন তার শশুরের থেকে প্রাপ্ত সম্পত্তি নিয়ে তার ভাসুরের সাথে দীর্ঘদিন বাটোয়ারা মামলা চলে আসছিল। এই মামলায় আদালত কর্তৃক তাদের পক্ষে রায় দেওয়া হয় এবং স্বরেজমিনে আদালত তাদের সম্পত্তি বুঝিয়ে দিয়ে যায়।

তিনি আরো দাবি করেন বাদী আব্দুর রব ইতিপূর্বে বিভিন্ন সময় তার স্বামীর সাথে বন্ধুসুলব আচরণ করতেন হঠাৎ করে তিনি কাদের পরোচনায় পড়ে আমার স্বামীর বিরুদ্ধে  অভিযোগ করেছেন তা আমার বোধগম্য নয়। আমার স্বামী অসুস্থ তার কোমরের জয়েন্টে লোহার রড ঢুকানো আছে তিনি হাই কমেট ছাড়া সৌচাগার ব্যবহার করতে পারেন না। এমন অবস্থায় আজ নয় দিন যাব তিনি কিভাবে জেল হাজতে সময় পার করছেন তা আমার জানা নেই। আপনাদের মাধ্যমে আমি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি আমার স্বামীকে মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি দিয়ে মুক্তি দিতে আদালতের মর্জি কামনা করছি।

বিষয়টি জানার জন্য বাদী আব্দুর রব কে একাধিক বার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

মামলার বিষয়টি নিয়ে উক্ত প্রতিবেদকের সাথে টেলিফোনে কথা হয় তুরাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মওদুদ হাওলাদারের সাথে। তিনি বলেন মামলার বিষয়বস্তু সঠিক না হলে অনুসন্ধানে যদি মিথ্যা পাওয়া যায় তাহলে আমরা আদালতে মামলাটি মিথ্যা বলিয়া রিপোর্ট দাখিল করিবো। আর সত্যতা পাওয়া গেলে চার্জশিট প্রদান করিব।

তিনি আরো বলেন আলাউদ্দিন আলালের বিরুদ্ধে ইতিপূর্বেও তুরাগ থানায় তেরোটির মত মামলা রয়েছে।

ওসি বলেন পুলিশের  কোনরকম কোন অসধ আচরণের সঠিক তথ্য পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।