ঢাকা ০৩:১৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আওয়ামী লীগ চুপ করে বসে নেই : মায়া চৌধুরী

Reporter Name
  • Update Time : ০৪:৪৭:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩
  • / ২৩০ Time View

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, আগামী নির্বাচন যথাসময়ে সংবিধান অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। কেউ কেউ বলে নির্বাচন হতে দেবে না। তারা মাঠে এসে নির্বাচনে বাধা দিয়ে দেখুক। আওয়ামী লীগ মাঠে আছে, চুপ করে বসে নেই।

সোমবার (১ মে) ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে মে দিবসের সমাবেশে এ কথা বলে তিনি। সমাবেশের আয়োজন করেছে জাতীয় শ্রমিক লীগ।

মায়া বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন আর দেশে শ্রমিক মালিকের মধ্যে ভেদাভেদ নেই, সবাই এক হয়ে গেছে। মালিক শ্রমিক সবাই এখন ভালো আছে।

বিএনপি হলো বাইচান্স পার্টি মন্তব্য করে মায়া বলেন, এদের কোনো ইতিহাস-ঐতিহ্য নেই। তাদের একটাই লক্ষ্য শেখ হাসিনাকে শেষ করতে হবে। এদেশের মধ্যে যদি কোনো খুন-খারাবির দল থাকে সেটা হলো বিএনপি।

বিএনপির সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, বিএনপি বলে নির্বাচন করতে দেবে না, আমি (মায়া) তাদেরকে বলে দিতে চাই, নির্বাচনে বাধা দিতে বিএনপি নেমেই দেখুক কী হয়, মাঠে আসেন। আওয়ামী লীগ মাঠে নেমে গেছে, আওয়ামী লীগ প্রস্তুত আছে।

তিনি বলেন, ক্ষমতায় আসতে হলে নির্বাচনে আসতে হবে। আপনারা (বিএনপি) নির্বাচনে আসুন। নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগ চুপ করে বসে নেই। আমাদের কাজ আমরা করে যাচ্ছি। জনগণের পায়ে ধরে ভোট চাইব, শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শ্রমজীবী মানুষ ভালো আছে। এদেশের শ্রমজীবী মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। দেশের মেহনতি ও শ্রমজীবী মানুষের কল্যাণের লক্ষ্য নিয়ে শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু এদেশ এগিয়ে যাওয়ার প্রধান অন্তরায় হলো বিএনপি। বিএনপি দেশের শত্রু, এরাই বার বার দেশের গণতন্ত্রে বাধা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা এদেশের মানুষকে এগিয়ে নিতে চাই। বিশ্বের বুকে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চায়। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি বিরুদ্ধে যারাই বিরোধিতা করবে, যারাই বাধা হবে, বিএনপি-জামায়াত আর যারাই হোক, সেই অপশক্তিকে প্রতিহত করে এদেশকে এগিয়ে নেবো।

জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি নূর কুতুব আলম মান্নানের সভাপতিত্বে সমাবেশ সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক আযম খসরু। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আফজাল হোসেন।

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির,
মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুল রহমান, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নুর তাপস, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামশ পরশ, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

আওয়ামী লীগ চুপ করে বসে নেই : মায়া চৌধুরী

Update Time : ০৪:৪৭:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ মে ২০২৩

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, আগামী নির্বাচন যথাসময়ে সংবিধান অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। কেউ কেউ বলে নির্বাচন হতে দেবে না। তারা মাঠে এসে নির্বাচনে বাধা দিয়ে দেখুক। আওয়ামী লীগ মাঠে আছে, চুপ করে বসে নেই।

সোমবার (১ মে) ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে মে দিবসের সমাবেশে এ কথা বলে তিনি। সমাবেশের আয়োজন করেছে জাতীয় শ্রমিক লীগ।

মায়া বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন আর দেশে শ্রমিক মালিকের মধ্যে ভেদাভেদ নেই, সবাই এক হয়ে গেছে। মালিক শ্রমিক সবাই এখন ভালো আছে।

বিএনপি হলো বাইচান্স পার্টি মন্তব্য করে মায়া বলেন, এদের কোনো ইতিহাস-ঐতিহ্য নেই। তাদের একটাই লক্ষ্য শেখ হাসিনাকে শেষ করতে হবে। এদেশের মধ্যে যদি কোনো খুন-খারাবির দল থাকে সেটা হলো বিএনপি।

বিএনপির সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, বিএনপি বলে নির্বাচন করতে দেবে না, আমি (মায়া) তাদেরকে বলে দিতে চাই, নির্বাচনে বাধা দিতে বিএনপি নেমেই দেখুক কী হয়, মাঠে আসেন। আওয়ামী লীগ মাঠে নেমে গেছে, আওয়ামী লীগ প্রস্তুত আছে।

তিনি বলেন, ক্ষমতায় আসতে হলে নির্বাচনে আসতে হবে। আপনারা (বিএনপি) নির্বাচনে আসুন। নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগ চুপ করে বসে নেই। আমাদের কাজ আমরা করে যাচ্ছি। জনগণের পায়ে ধরে ভোট চাইব, শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শ্রমজীবী মানুষ ভালো আছে। এদেশের শ্রমজীবী মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা। দেশের মেহনতি ও শ্রমজীবী মানুষের কল্যাণের লক্ষ্য নিয়ে শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু এদেশ এগিয়ে যাওয়ার প্রধান অন্তরায় হলো বিএনপি। বিএনপি দেশের শত্রু, এরাই বার বার দেশের গণতন্ত্রে বাধা হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা এদেশের মানুষকে এগিয়ে নিতে চাই। বিশ্বের বুকে বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চায়। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি বিরুদ্ধে যারাই বিরোধিতা করবে, যারাই বাধা হবে, বিএনপি-জামায়াত আর যারাই হোক, সেই অপশক্তিকে প্রতিহত করে এদেশকে এগিয়ে নেবো।

জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি নূর কুতুব আলম মান্নানের সভাপতিত্বে সমাবেশ সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক আযম খসরু। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আফজাল হোসেন।

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির,
মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুল রহমান, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নুর তাপস, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামশ পরশ, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল প্রমুখ।