ঢাকা ০৮:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজঃ

আইপিএলের ১০ দলের মালিক যারা

Reporter Name
  • Update Time : ০৯:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩
  • / ৩২০ Time View

ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগ আইপিএলের প্রথম আত্মপ্রকাশ ২০০৮ সালে। দেখতে দেখতে ১৫তম সংস্করণের সামনে দাঁড়িয়ে আইপিএল।

বেঙ্গালুরুতে আইপিএল ২০২২ আসরের নিলাম বসতে যাচ্ছে শনি ও রবিবার। দুই দিন ব্যাপী নিলামে অংশ নিতে যাচ্ছেন ৫৯০ জন ক্রিকেটার। বাংলাদেশ থেকে রয়েছেন পাঁচজন।

বাংলাদেশ থেকে জায়গা পেয়েছেন মোট পাঁচ ক্রিকেটার। ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক আসরে নিয়মিত খেলা সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে এবার নিলামে রয়েছে লিটন দাস,তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলামের নাম।

আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশগুলো থেকে ‍নিলামে সুযোগ পেয়েছেন ৭ জন।

ভারতসহ সব মিলে মোট ১৫টি দেশের ক্রিকেটার এবারের আইপিএল নিলামে সুযোগ পাচ্ছেন। অস্ট্রেলিয়া থেকে সবচেয়ে বেশি ৪৭ জন ক্রিকেটারের নাম রয়েছে নিলামের তালিকায়।

বাংলাদেশ থেকে এবার মোট ৯ জন ক্রিকেটার নাম দিয়েছিলেন, বাদ পড়েছেন ৪ জন।

সাকিব ও মোস্তাফিজ রয়েছেন সর্বোচ্চ ভিত্তিমূল্যের ক্যাটাগরিতে। দুজনই আছেন ২ কোটি রুপি ভিত্তি মূল্যের তালিকায়। লিটন, তাসকিন ও শরিফুল তিনজনই আছেন ৫০ লাখ রুপির ক্যাটাগরিতে।

এ বছর থেকে ৮ দলের বদলে ১০ দলের আইপিএল হবে। আসন্ন নিলামের আগে জেনে নিন এই ১০টি ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিক সম্পর্কে-

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

আইপিএলের সব থেকে সফল দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ৫ বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মুম্বাই। এই দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। হেড কোচ মাহেলা জয়বর্ধনে। ভারতের অন্যতম ধনী ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতি আম্বানি এই দলটির মালিক। পাশাপাশি দলটির অফিশিয়াল স্বত্ব মুকেশ আম্বানির কোম্পানি রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের কাছে রয়েছে।

চেন্নাই সুপার কিংস

আইপিএলে ৪ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস। এই দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। হেড কোচ হলেন স্টিফেন ফ্লেমিং। ইন্ডিয়া সিমেন্ট লিমিটেডের নামে এই দলের মালিকানা রয়েছে। এই কোম্পানিটি এন শ্রীনিবাসনের।

দিল্লি ক্যাপিটালস

২০২০ সালের আইপিএলে রানার্সআপ হয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। এই দলের অধিনায়ক হলেন ঋষভ পন্ত। হেড কোচের দায়িত্বে রয়েছেন রিকি পন্টিং। এই দলের মালিকানা রয়েছে জেএসডব্লিউ ও জিএমআর গ্রুপের কাছে। সজ্জন জিন্দাল হলেন গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর। আক গ্র্যান্ডি মল্লিকার্জুন রাও হলেন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান।

কলকাতা নাইট রাইডার্স

দুইবারের চ্যাম্পিয়ন কলকাতা নাইট রাইডার্স বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খানের দল হিসেবে পরিচিত। শাহরুখ খানের কোম্পানি রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট ছাড়াও অভিনেত্রী জুহি চাওলা এবং তার স্বামী জয় মেহতার কোম্পানি মেহতা গ্রুপও এই দলের মালিক। আইপিএল ২০২২ নিলামে দল সাজানোর পাশাপাশি ভালো ক্যাপ্টেনের খোঁজেও রয়েছে নাইটরা। এই দলের হেড কোচ হলেন ব্র্যান্ডন ম্যাকালাম।

পাঞ্জাব কিংস

আইপিএল দল পাঞ্জাব কিংস যৌথভাবে ওয়াদিয়া গ্রুপের নেস ওয়াদিয়া এবং বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিন্তার মালিকানাধীন। এই দুজন ছাড়াও ভারতীয় ব্যবসায়ী মোহিত বর্মণ এবং অ্যাপিজে গ্রুপের করণ পালেরও এই ফ্র্যাঞ্চাইজিতে অংশীদারত্ব রয়েছে। এই দলও ক্যাপ্টেনের খোঁজে রয়েছে। পাঞ্জাবের হেড কোচের দায়িত্বে রয়েছেন অনিল কুম্বলে।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ

আইপিএলে এক বার ট্রফির স্বাদ পেয়েছে এই দল। এর আগে ২০০৮ সালে ডেকান চার্জার্স দলটি গঠিত হয়েছিল, যা তখন ডেকান ক্রনিকল গ্রুপের মালিকানাধীন ছিল। ডেকান চার্জার্সের দেউলিয়া হওয়ার পরে, সান টিভি নেটওয়ার্ক নতুন মালিক হয় এবং দলটির নাম পরিবর্তন করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ করা হয়। ফলে হায়দরাবাদ দলটির মালিক হলেন কালনিথি মারান। এই দলের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন এবং কোচ হলেন টম মুডি।

রাজস্থান রয়্যালস

আইপিএলের প্রথম মৌসুমে শিরোপা জিতে নেওয়া রাজস্থান রয়্যালসের মালিকানা অনেকের হাতে রয়েছে। ইউকে এশিয়ান ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মনোজ বাদালে, ফক্স করপোরেশনের সিইও লাচলান মারডক এবং রেডবার্ড ক্যাপিটাল পার্টনারের অধীনে রয়েছে রাজস্থানের মালিকানা। এই দলের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন এবং হেড কোচ ট্রেভর পিনে।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু আনন্দ কৃপালুর মালিকানাধীন ইউনাইটেড স্পিরিটস লিমিটেডের মালিকানাধীন। ২০১৬ সালে এই দল ফাইনালে উঠেছিল। গত বছর আইপিএলের সময় বিরাট কোহলি জানিয়ে দিয়েছিলেন, আসন্ন আইপিএল থেকে তিনি আরসিবির ক্যাপ্টেন হিসেবে খেলবেন না। ফলে এই দলও ভালো অধিনায়কের খোঁজে রয়েছে। এই দলের হেড কোচ সঞ্জয় ব্যাঙ্গার।

লখনউ সুপার জায়ান্টস

সঞ্জীব গোয়েঙ্কা লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা কিনেছিলেন ৭০৯০ কোটি টাকা দিয়ে। আইপিএলের এই নতুন দলটির নাম লখনউ সুপার জায়ান্টস। এই দলের অধিনায়ক হয়েছেন লোকেশ রাহুল এবং হেড কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার।

গুজরাট টাইটান্স

আইপিএল ২০২২ এর দ্বিতীয় নতুন দল হল আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির। সিভিসি ক্যাপিটালস এই দলটি কিনেছে ৫৬২৫ কোটি টাকা খরচ করে। এই দলটির নাম রাখা হয়েছে গুজরাট টাইটান্স। দলের নতুন অধিনায়ক হলেন হার্দিক পান্ডিয়া এবং কোচের দায়িত্বে রয়েছেন আশিষ নেহরা।

Please Share This Post in Your Social Media

আইপিএলের ১০ দলের মালিক যারা

Update Time : ০৯:৫৪:৩৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩

ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-টোয়েন্টি লিগ আইপিএলের প্রথম আত্মপ্রকাশ ২০০৮ সালে। দেখতে দেখতে ১৫তম সংস্করণের সামনে দাঁড়িয়ে আইপিএল।

বেঙ্গালুরুতে আইপিএল ২০২২ আসরের নিলাম বসতে যাচ্ছে শনি ও রবিবার। দুই দিন ব্যাপী নিলামে অংশ নিতে যাচ্ছেন ৫৯০ জন ক্রিকেটার। বাংলাদেশ থেকে রয়েছেন পাঁচজন।

বাংলাদেশ থেকে জায়গা পেয়েছেন মোট পাঁচ ক্রিকেটার। ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক আসরে নিয়মিত খেলা সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে এবার নিলামে রয়েছে লিটন দাস,তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলামের নাম।

আইসিসির সহযোগী সদস্য দেশগুলো থেকে ‍নিলামে সুযোগ পেয়েছেন ৭ জন।

ভারতসহ সব মিলে মোট ১৫টি দেশের ক্রিকেটার এবারের আইপিএল নিলামে সুযোগ পাচ্ছেন। অস্ট্রেলিয়া থেকে সবচেয়ে বেশি ৪৭ জন ক্রিকেটারের নাম রয়েছে নিলামের তালিকায়।

বাংলাদেশ থেকে এবার মোট ৯ জন ক্রিকেটার নাম দিয়েছিলেন, বাদ পড়েছেন ৪ জন।

সাকিব ও মোস্তাফিজ রয়েছেন সর্বোচ্চ ভিত্তিমূল্যের ক্যাটাগরিতে। দুজনই আছেন ২ কোটি রুপি ভিত্তি মূল্যের তালিকায়। লিটন, তাসকিন ও শরিফুল তিনজনই আছেন ৫০ লাখ রুপির ক্যাটাগরিতে।

এ বছর থেকে ৮ দলের বদলে ১০ দলের আইপিএল হবে। আসন্ন নিলামের আগে জেনে নিন এই ১০টি ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিক সম্পর্কে-

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স

আইপিএলের সব থেকে সফল দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ৫ বার আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মুম্বাই। এই দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। হেড কোচ মাহেলা জয়বর্ধনে। ভারতের অন্যতম ধনী ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতি আম্বানি এই দলটির মালিক। পাশাপাশি দলটির অফিশিয়াল স্বত্ব মুকেশ আম্বানির কোম্পানি রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের কাছে রয়েছে।

চেন্নাই সুপার কিংস

আইপিএলে ৪ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস। এই দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। হেড কোচ হলেন স্টিফেন ফ্লেমিং। ইন্ডিয়া সিমেন্ট লিমিটেডের নামে এই দলের মালিকানা রয়েছে। এই কোম্পানিটি এন শ্রীনিবাসনের।

দিল্লি ক্যাপিটালস

২০২০ সালের আইপিএলে রানার্সআপ হয়েছিল দিল্লি ক্যাপিটালস। এই দলের অধিনায়ক হলেন ঋষভ পন্ত। হেড কোচের দায়িত্বে রয়েছেন রিকি পন্টিং। এই দলের মালিকানা রয়েছে জেএসডব্লিউ ও জিএমআর গ্রুপের কাছে। সজ্জন জিন্দাল হলেন গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর। আক গ্র্যান্ডি মল্লিকার্জুন রাও হলেন গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান।

কলকাতা নাইট রাইডার্স

দুইবারের চ্যাম্পিয়ন কলকাতা নাইট রাইডার্স বলিউড অভিনেতা শাহরুখ খানের দল হিসেবে পরিচিত। শাহরুখ খানের কোম্পানি রেড চিলিজ এন্টারটেইনমেন্ট ছাড়াও অভিনেত্রী জুহি চাওলা এবং তার স্বামী জয় মেহতার কোম্পানি মেহতা গ্রুপও এই দলের মালিক। আইপিএল ২০২২ নিলামে দল সাজানোর পাশাপাশি ভালো ক্যাপ্টেনের খোঁজেও রয়েছে নাইটরা। এই দলের হেড কোচ হলেন ব্র্যান্ডন ম্যাকালাম।

পাঞ্জাব কিংস

আইপিএল দল পাঞ্জাব কিংস যৌথভাবে ওয়াদিয়া গ্রুপের নেস ওয়াদিয়া এবং বলিউড অভিনেত্রী প্রীতি জিন্তার মালিকানাধীন। এই দুজন ছাড়াও ভারতীয় ব্যবসায়ী মোহিত বর্মণ এবং অ্যাপিজে গ্রুপের করণ পালেরও এই ফ্র্যাঞ্চাইজিতে অংশীদারত্ব রয়েছে। এই দলও ক্যাপ্টেনের খোঁজে রয়েছে। পাঞ্জাবের হেড কোচের দায়িত্বে রয়েছেন অনিল কুম্বলে।

সানরাইজার্স হায়দরাবাদ

আইপিএলে এক বার ট্রফির স্বাদ পেয়েছে এই দল। এর আগে ২০০৮ সালে ডেকান চার্জার্স দলটি গঠিত হয়েছিল, যা তখন ডেকান ক্রনিকল গ্রুপের মালিকানাধীন ছিল। ডেকান চার্জার্সের দেউলিয়া হওয়ার পরে, সান টিভি নেটওয়ার্ক নতুন মালিক হয় এবং দলটির নাম পরিবর্তন করে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ করা হয়। ফলে হায়দরাবাদ দলটির মালিক হলেন কালনিথি মারান। এই দলের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন এবং কোচ হলেন টম মুডি।

রাজস্থান রয়্যালস

আইপিএলের প্রথম মৌসুমে শিরোপা জিতে নেওয়া রাজস্থান রয়্যালসের মালিকানা অনেকের হাতে রয়েছে। ইউকে এশিয়ান ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মনোজ বাদালে, ফক্স করপোরেশনের সিইও লাচলান মারডক এবং রেডবার্ড ক্যাপিটাল পার্টনারের অধীনে রয়েছে রাজস্থানের মালিকানা। এই দলের অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসন এবং হেড কোচ ট্রেভর পিনে।

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু আনন্দ কৃপালুর মালিকানাধীন ইউনাইটেড স্পিরিটস লিমিটেডের মালিকানাধীন। ২০১৬ সালে এই দল ফাইনালে উঠেছিল। গত বছর আইপিএলের সময় বিরাট কোহলি জানিয়ে দিয়েছিলেন, আসন্ন আইপিএল থেকে তিনি আরসিবির ক্যাপ্টেন হিসেবে খেলবেন না। ফলে এই দলও ভালো অধিনায়কের খোঁজে রয়েছে। এই দলের হেড কোচ সঞ্জয় ব্যাঙ্গার।

লখনউ সুপার জায়ান্টস

সঞ্জীব গোয়েঙ্কা লখনউ ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকানা কিনেছিলেন ৭০৯০ কোটি টাকা দিয়ে। আইপিএলের এই নতুন দলটির নাম লখনউ সুপার জায়ান্টস। এই দলের অধিনায়ক হয়েছেন লোকেশ রাহুল এবং হেড কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার।

গুজরাট টাইটান্স

আইপিএল ২০২২ এর দ্বিতীয় নতুন দল হল আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজির। সিভিসি ক্যাপিটালস এই দলটি কিনেছে ৫৬২৫ কোটি টাকা খরচ করে। এই দলটির নাম রাখা হয়েছে গুজরাট টাইটান্স। দলের নতুন অধিনায়ক হলেন হার্দিক পান্ডিয়া এবং কোচের দায়িত্বে রয়েছেন আশিষ নেহরা।