ঢাকা ১১:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অক্টোবরের মধ্যে এ সরকারকে বিদায় নিতে হবে : শামসুজ্জামান দুদু

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : ০৪:১২:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩
  • / ৬৪ Time View

সেপ্টেম্বর থেকে সর্বোচ্চ অক্টোবরের মধ্যে এ সরকারকে বিদায় নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএন‌পির ভাইস চেয়ারম‌্যান শামসুজ্জামান দুদু।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার গায়ের জোরে, গুন্ডামি করে দেশটা দখল করে রেখেছে। প্রশাসন দখল করেছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দখল করেছে।

আইন আদালত, শিক্ষাঙ্গন দখল করেছে। প্রমাণ চান? এইসব জায়গায় গেলেই বুঝতে পারবেন। পুরা দেশটাই তারা দখল করে নিয়েছে। এই দেশকে দখলমুক্ত করতে হবে।

রোববার (১৭ সে‌প্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লা‌বের সাম‌নে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত খালেদা জিয়া ও বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমানের মুক্তির দাবিতে এক সভায় তি‌নি এসব কথা ব‌লেন।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, এই দখল করার জন্য কারা কারা ছিল। কোন কোন পত্রিকা ছিল। কোন কোন দেশ ছিল তা আপনারা জানেন।

সে সব দেশ কিন্তু এখন আর এই দখলকারীদের পাশে নাই। এখন চারপাশে কথাবার্তা শোনা যাচ্ছে এই সরকার আর থাকতে পারবে না। নিশ্চিতভাবে এই সরকার আর থাকছে না।

এই সরকারকে অনতিবিলম্বে বিদায় নিতে হবে। দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। তখন দেশে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন হবে।

সেই নির্বাচনে কে ক্ষমতায় আসবে তা আপনারা জানেন। আওয়ামী লীগ জানে। আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন জানে তাই ভয় পাওয়ার কিছু নাই।

শেখ হাসিনা উদ্দেশ্যে ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, জিয়াউর রহমান ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বাসা আপনাকে বুঝিয়ে দিয়েছিল।

ব্যাংকে টাকা ও সোনা আপনাকে বুঝিয়ে দিয়েছিল। বেগম খালেদা জিয়া আপনাকে আইনের আশ্রয় নিয়ে সসম্মানে দেশে মুক্ত করে দিয়েছিল। কিন্তু আপনি তাকে (বেগম খালেদা জিয়া) বিপরীত দিকে নিয়ে গেছেন।

বিএনপি দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করবে, সাংবিধানিক শাসন প্রতিষ্ঠা করবে, তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।

তিনি বলেন, ২০১৮ ও ২০১৪ সালের নির্বাচন; কোনও নির্বাচনই হয়নি। তাই সামনের নির্বাচনে মানুষের কথা বলা বন্ধ করার জন্য সাইবার নিরাপত্তা আইন করেছে। কথা একটাই, এ সরকারকে আমরা বিদায় করব।

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে বন্দী করে রেখেছে সরকার।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে দেশে আসতে দিচ্ছে না। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে।

আর তার জন্য এই সরকারের বিদায় করতে হবে। আর এই সরকারের বিদায় করতে হলে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামতে হবে।

সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন সভাপতিত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে আরও বক্তব্য রাখেন মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট সৈয়দা আশিফা আশরাফি পাপিয়া, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

অক্টোবরের মধ্যে এ সরকারকে বিদায় নিতে হবে : শামসুজ্জামান দুদু

Update Time : ০৪:১২:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সেপ্টেম্বর থেকে সর্বোচ্চ অক্টোবরের মধ্যে এ সরকারকে বিদায় নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএন‌পির ভাইস চেয়ারম‌্যান শামসুজ্জামান দুদু।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার গায়ের জোরে, গুন্ডামি করে দেশটা দখল করে রেখেছে। প্রশাসন দখল করেছে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী দখল করেছে।

আইন আদালত, শিক্ষাঙ্গন দখল করেছে। প্রমাণ চান? এইসব জায়গায় গেলেই বুঝতে পারবেন। পুরা দেশটাই তারা দখল করে নিয়েছে। এই দেশকে দখলমুক্ত করতে হবে।

রোববার (১৭ সে‌প্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লা‌বের সাম‌নে দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলন আয়োজিত খালেদা জিয়া ও বিএনপি নেতা আমান উল্লাহ আমানের মুক্তির দাবিতে এক সভায় তি‌নি এসব কথা ব‌লেন।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, এই দখল করার জন্য কারা কারা ছিল। কোন কোন পত্রিকা ছিল। কোন কোন দেশ ছিল তা আপনারা জানেন।

সে সব দেশ কিন্তু এখন আর এই দখলকারীদের পাশে নাই। এখন চারপাশে কথাবার্তা শোনা যাচ্ছে এই সরকার আর থাকতে পারবে না। নিশ্চিতভাবে এই সরকার আর থাকছে না।

এই সরকারকে অনতিবিলম্বে বিদায় নিতে হবে। দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠিত হবে। তখন দেশে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন হবে।

সেই নির্বাচনে কে ক্ষমতায় আসবে তা আপনারা জানেন। আওয়ামী লীগ জানে। আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন জানে তাই ভয় পাওয়ার কিছু নাই।

শেখ হাসিনা উদ্দেশ্যে ছাত্রদলের সাবেক এই সভাপতি বলেন, জিয়াউর রহমান ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বাসা আপনাকে বুঝিয়ে দিয়েছিল।

ব্যাংকে টাকা ও সোনা আপনাকে বুঝিয়ে দিয়েছিল। বেগম খালেদা জিয়া আপনাকে আইনের আশ্রয় নিয়ে সসম্মানে দেশে মুক্ত করে দিয়েছিল। কিন্তু আপনি তাকে (বেগম খালেদা জিয়া) বিপরীত দিকে নিয়ে গেছেন।

বিএনপি দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করবে, সাংবিধানিক শাসন প্রতিষ্ঠা করবে, তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রতিষ্ঠা করবে।

তিনি বলেন, ২০১৮ ও ২০১৪ সালের নির্বাচন; কোনও নির্বাচনই হয়নি। তাই সামনের নির্বাচনে মানুষের কথা বলা বন্ধ করার জন্য সাইবার নিরাপত্তা আইন করেছে। কথা একটাই, এ সরকারকে আমরা বিদায় করব।

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে বন্দী করে রেখেছে সরকার।

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে দেশে আসতে দিচ্ছে না। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে হবে।

আর তার জন্য এই সরকারের বিদায় করতে হবে। আর এই সরকারের বিদায় করতে হলে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে রাজপথে নামতে হবে।

সংগঠনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন সভাপতিত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে আরও বক্তব্য রাখেন মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, সাবেক এমপি অ্যাডভোকেট সৈয়দা আশিফা আশরাফি পাপিয়া, মুক্তিযোদ্ধা দলের সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার প্রমুখ।